ফকির লালন

ফকির মনোরঞ্জন গোঁসাই কথামালা

মনোরঞ্জন গোঁসাই : বাউল সাধনার শুদ্ধপুরুষ – এক

যার ফলে তাঁর জীবনচর্চার মধ্যে বাউল পথ-মতের শুদ্ধাচারী ধারা শনাক্তযোগ্য ভাবে পরিস্ফুট হতে দেখা গেছে। তিনি নিজে যেমন বাউলের শুদ্ধাচারী সাধনার চর্চা করতেন। তেমনি বাউল দর্শনের সর্বজনীন দিকটাকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেবার মানসে।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির সামসুল সাঁইজি কথামালা

লালন সাধনায় গুরু : তিন

এই যে দুনিয়াতে কখন থেকে আসা হলো। এই যে আদম যে ভুল করলো, সেই ভুল করার পরে ভবনগরে আদমকে পাঠানো হলো। আদম আর হাওয়া। কেন তার আগে তারা ভবে ছিল না? স্বর্গে রাখা হয়েছিল। শান্তিময় পরিবেশকে যখন ভঙ্গ করা হলো। কাম আবেশে লিপ্ত হয়ে রতি স্খলন করলো। এটিই গন্ধম ভক্ষণ করা। সাজা স্বরূপ তাদেরকে বিছিন্ন করে রাখা হলো, দুনিয়াতে জেদ্দার সংলগ্ন।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির মনোরঞ্জন গোঁসাই কথামালা

মনোরঞ্জন গোঁসাই ও তাঁর জীবন দর্শন

মূলত সদালাপী, সদাহাস্য এই মানবতাবাদী বাউল সাধকের সারাটা জীবন কেটেছে মানব তথা জীবসেবায়। ব্যক্তিগত জীবনে আমি তাঁর কাছে একান্ত কৃতজ্ঞ, কারণ বাউল মত পথের অনেক খুঁটিনাটী বিষয়াদি যেমন আমি তাঁর কাছে শুনতে পেরেছি, তেমনি আয়ুর্বেদিক চিকিৎসার নানা বিষয় তাঁর কাছে প্রাপ্ত হয়ে নিজ আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা জীবনকে কমবেশি সমৃদ্ধ করতে পেরেছি।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির সামসুল সাঁইজি কথামালা

লালন সাধনায় গুরু : দুই

এটাকে দুইভাবে বিভক্ত করবো। ভাববে যে সাঁইজি মানুষকে মক্কাতে নিয়ত বাঁধতে বললেন। কিন্তু ভাবার্থ তো তা না। মানুষকে মানুষ মক্কায় নিয়ত বাঁধতে বললেন। দেল কাবায়। দেল কাবায় নিয়ত বাঁধতে বললেন। অর্থাৎ গুরু মুর্শিদের উপর।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির মনোরঞ্জন গোঁসাই কথামালা

স্বরূপ সন্ধানী দার্শনিক

সেই ধারাবাহিকতায় তাঁর ভক্ত মনোরঞ্জন গোঁসাইও মানবতার জয় গান গেয়েছেন জীবনের শেষদিন পর্যন্ত। মনোরঞ্জন গোঁসাইয়ের লেখা পড়ে আমি অবাক হয়েছি তার বোধের বিস্তার দেখে। অগাধ তার জ্ঞান। অসীম তার ভাবনা। তিনি নিজেই লিখেন বাউল গানের শিল্পীর অভাব নেই কিন্তু প্রকৃত বাউলের বড় অভাব। সত্যিই তাই।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির সামসুল সাঁইজি কথামালা

লালন সাধনায় গুরু: এক

একটা নির্দিষ্ট যদি আকার থাকে, তাহলে সে আকারে আমার সেজদা হচ্ছে। আল্লাহর তো অগণিত আকার। আমি একটা আকারকে নির্বাচন করবো। আমার এবাদতের জন্য আমি একটা আকারকে আমি সনাক্ত করলাম। সেটি আমার গুরু আকার। এ ব্যতীত আর সমস্ত আকারের তো আর সাধনা করা যায় না।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির মনোরঞ্জন গোঁসাই কথামালা

আমার দেখা কবিরাজ গোঁসাই

গেটের কাছ রিকসা থেকে নেমে দক্ষিণ দিকে মুখ করে দাঁড়াতেই দেখলাম একটা দাঁড়ানো মাইক্রোবাস থেকে এটা ডান পা মাটি স্পর্শ করল। তিনি দাঁড়ালেন। তাঁর সাথে এসেছেন পুত্র তপন ও তাঁর স্ত্রী এবং শিশুপুত্র। এসেছে কয়েকজন স্বজন ও শিষ্যবর্গ।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির মনোরঞ্জন গোঁসাই কথামালা

আমার পিতা ভক্ত মনোরঞ্জন গোঁসাই ও তাঁর দর্শন

কোন ভক্ত বাড়িতে আসলে তিনি খুবই আনন্দ পেতেন এবং তাদের জন্য কিছু করতে চাইতেন। তিনি ভক্ত অনুরাগী মানুষ ছিলেন। পেশায় ছিলেন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক। ব্যবসা আমি এবং আমার বাবা একই সাথে করতাম। বহু রোগীকে দেখেছি ঔষধের দাম নেওয়া তো দূরের কথা পথ্য কেনার টাকা ও আসাযাওয়ার ভাড়া পর্যন্ত দিয়ে দিতেন।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির সামসুল সাঁইজি কথামালা

না বুঝে মজো না পিরিতে

নামজের দ্বারা গর্হিত কর্ম আমার বঞ্চিত হলো কিনা? রোজা উপবাসের মাধ্যমে করে আমার নফস্ রিপু দমন হলো কি না? যদি হয়ে থাকে পরীক্ষাটা আমাকে আমার জন্য করতে হবে। তাহলে আমি বেহেস্তে সঠিকভাবে যেতে পারবো। তাহলে যদি সবই থাকে, অথচ করছি; তাহলে আল্লাহ্’কে দায়ী করে লাভ নাই।

বিস্তারিত পড়ুন
ফকির লালন শাহ্ কথামালা

মহাত্মা ফকির লালন সাঁইজি: তিন

আত্মজ্ঞানীই সত্যপীর বা সদগুরু। তাই একজন আত্মজ্ঞানীকে ভালোবাসলেই- তাঁকে অনুসরণ করলেই আত্মজ্ঞান লাভ করা সম্ভব। লালন সিরাজ সাঁইয়ের শিষ্যত্ব গ্রহণ করে আত্মতত্ত্ব জেনে প্রভুকে চেনার পথ খুঁজে নিয়েছিলেন।

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!