ভবঘুরে কথা

ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : দ্বাদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ২০শে অক্টোবর বড়বাজারে অন্নকূট-মহোৎসবের মধ্যে – ৺ময়ূরমুকুটধারীর পূজা ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কিয়ৎক্ষণ বিশ্রাম করিতেছেন। এদিকে মারোয়াড়ী ভক্তেরা বাহিরে ছাদের উপর ভজন আরম্ভ করিয়াছেন। শ্রীশ্রীময়ূরমুকুটধারীর আজ মহোৎসব। ভোগের সমস্ত আয়োজন হইয়াছে। ঠাকুরদর্শন করিতে শ্রীরামকৃষ্ণদেবকে আহ্বান করিয়া তাঁহারা লইয়া গেলেন। ময়ূরমুকুটধারীকে দর্শন করিয়া ঠাকুর প্রণাম করিলেন ও নির্মাল্যধারণ করিলেন। বিগ্রহদর্শন করিয়া ঠাকুর ভাবে মুগ্ধ। হাতজোড় করিয়া বলিতেছেন, […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : একাদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ২০শে অক্টোবর অবতার কি এখন নাই? গৃহস্বামী আসিয়া প্রণাম করিলেন। তিনি মারোয়াড়ী ভক্ত, ঠাকুরকে বড় ভক্তি করেন। পণ্ডিতজীর ছেলেটি বসিয়া আছেন। ঠাকুর জিজ্ঞাসা করিলেন, “পাণিনি ব্যাকরণ কি এদেশে পড়া হয়?” মাস্টার – আজ্ঞে, পাণিনি? শ্রীরামকৃষ্ণ – হ্যাঁ, আর ন্যায়, বেদান্ত এ-সব পড়া হয়? গৃহস্বামী ও-সব কথায় সায় না দিয়া জিজ্ঞাসা করিতেছেন। গৃহস্বামী – মহারাজ, […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : দশম পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ২০শে অক্টোবর ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ বড়বাজারে মারোয়াড়ী ভক্তমন্দিরে আজ ঠাকুর ১২নং মল্লিক স্ট্রীট বড়বাজারে শুভাগমন করিতেছেন। মারোয়াড়ী ভক্তেরা অন্নকূট করিয়াছেন – ঠাকুরের নিমন্ত্রণ। দুইদিন হইল শ্যামাপূজা হইয়া গিয়াছে। সেই দিনে ঠাকুর দক্ষিণেশ্বরে ভক্তসঙ্গে আনন্দ করিয়াছিলেন। তাহার পরদিন আবার ভক্তসঙ্গে সিঁথি ব্রাহ্মসমাজে উৎসবে গিয়াছিলেন। আজ সোমবার, ২০শে অক্টোবর, ১৮৮৪ খ্রীষ্টাব্দ কার্তিকের শুক্লা প্রতিপদ – দ্বিতীয়া তিথি, […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : নবম পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর মা – কালী ব্রহ্ম – পূর্ণজ্ঞানের পর অভেদ আহারান্তে সকলে পান খাইতে বাড়ি প্রত্যাগমনের উদ্যোগ করিতেছেন। যাইবার পূর্বে ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ বিজয়ের সহিত একান্তে বসিয়া কথা কহিতেছেন। সেখানে মাস্টার আছেন। [ব্রাহ্মসমাজে ঈশ্বরের মাতৃভাব – Motherhood of God] শ্রীরামকৃষ্ণ – তুমি তাঁকে মা মা বলে প্রার্থনা করছিলে। এ-খুব ভাল। কথায় বলে, মায়ের টান বাপের […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : অষ্টম পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর বিজয়ের প্রতি উপদেশ [ব্রাহ্মসমাজে লেকচার – আচার্যের কার্য – ঈশ্বরই গুরু ] বিজয় – আপনি অনুগ্রহ করুন, তবে আমি বেদী থেকে বলব। শ্রীরামকৃষ্ণ – অভিমান গেলেই হল। ‘আমি লেকচার দিচ্ছি, তোমরা শুন’ – এ-অভিমান না থাকলেই হল। অহংকার জ্ঞানে হয়, না, অজ্ঞানে হয়? যে নিরহংকার তারই জ্ঞান হয়। নিচু জায়গায় বৃষ্টির জল […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : সপ্তম পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর শ্রীরামকৃষ্ণ সংকীর্তনানন্দে ত্রৈলোক্য আবার গান গাহিতেছেন। সঙ্গে খোল-করতাল বাজিতেছে। শ্রীরামকৃষ্ণ প্রেমে উন্মত্ত হইয়া নৃত্য করিতেছেন। নৃত্য করিতে করিতে কতবার সমাধিস্থ হইতেছেন। সমাধিস্থ অবস্থায় দাঁড়াইয়া আছেন, স্পন্দহীন দেহ, স্থিরনেত্র, সহাস্যবদন; কোন প্রিয় ভক্তের স্কন্ধদেশে হাত দিয়ে আছেন। আবার ভাবান্তে মত্ত মাতঙ্গের ন্যায় নৃত্য। বাহ্যদশা প্রাপ্ত হইয়া গানের আখর দিতেছেন: “নাচ মা, ভক্তবৃন্দ বেড়ে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : ষষ্ঠ পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর অহংকার ও সদরওয়ালা শ্রীরামকৃষ্ণ (সদরওয়ালার প্রতি) – আচ্ছা, অভিমান, অহংকার জ্ঞানে হয় – না, অজ্ঞানে হয়? অহংকার তমোগুণ, অজ্ঞান থেকে উৎপন্ন হয়। এই অহংকার আড়াল আছে বলে তাই ঈশ্বরকে দেখা যায় না। “আমি মলে ঘুচিবে জঞ্জাল।” অহংকার করা বৃথা। এ-শরীর, এ-ঐশ্বর্য কিছুই থাকবে না। একটা মাতাল দুর্গা প্রতিমা দেখছিল। প্রতিমার সাজগোজ দেখে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : পঞ্চম পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর আমমোক্তারী দাও – গৃহস্থের কর্তব্য কতদিন? ত্রৈলোক্য – মহাশয়, এঁদের সময় কই; ইংরেজের কর্ম করতে হয়। শ্রীরামকৃষ্ণ (সদরওয়ালার প্রতি) – আচ্ছা তাঁকে আমমোক্তারী দাও। ভাল লোকের উপর যদি কেউ ভার দেয়, সে লোক কি আর মন্দ করে? তাঁর উপর আন্তরিক সব ভার দিয়ে তুমি নিশ্চিন্ত হয়ে বসে থাক। তিনি যা কাজ করতে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : চতুর্থ পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর ব্রাহ্মসমাজ – কেশব ও নির্লিপ্ত সংসার – সংসারত্যাগ [পূর্বকথা – কেশবকে শিক্ষা – নির্জনে সাধন – জ্ঞানের লক্ষণ ] সদরওয়ালা – মহাশয়, সংসার কি ত্যাগ করতে হবে? শ্রীরামকৃষ্ণ – না, তোমাদের ত্যাগ কেন করতে হবে? সংসারে থেকেই হতে পারে। তবে আগে দিন কতক নির্জনে থাকতে হয়। নির্জনে থেকে ঈশ্বরের সাধনা করতে হয়। […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ত্রয়োত্রিংশ অধ্যায় : তৃতীয় পরিচ্ছেদ

১৮৮৪, ১৯শে অক্টোবর ব্রাহ্মভক্তসঙ্গে – ব্রাহ্মসমাজ ও ঈশ্বরের ঐশ্বর্য বর্ণনা শ্রীরামকৃষ্ণ – ডুব দাও। ঈশ্বরকে ভালবাসতে শেখ। তাঁর প্রেমে মগ্ন হও। দেখ, তোমাদের উপাসনা শুনেছি। কিন্তু তোমাদের ব্রাহ্মসমাজে ঈশ্বরের ঐশ্বর্য অত বর্ণনা কর কেন? “হে ঈশ্বর, তুমি আকাশ করিয়াছ; বড় বড় সমুদ্র করিয়াছ, চন্দ্রলোক, সূর্যলোক, নক্ষত্রলোক, সব করিয়াছ” – এ-সব কথায় আমাদের অত কাজ কি? […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!