ভবঘুরে কথা

ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : ষষ্ঠ পরিচ্ছেদ

১৮৮৫, ২৮শে জুলাই গুহ্যকথা – “তিনজনই এক” বলরামের বাড়ির বৈঠকখানার পশ্চিমপার্শ্বের ঘরে ঠাকুর বিশ্রাম করিতেছেন, নিদ্রা জাইবেন। গণুর মার বাড়ি হইতে ফিরিতে অনেক রাত হইয়া গিয়াছে। রাত পৌনে এগারটা হইবে। ঠাকুর বলিতেছেন, “যোগীন একটু পায়ে হাতটা বুলিয়ে দাও তো।” কাছে মণি বসিয়া আছেন। যোগীন পায়ে হাত বুলাইয়া দিতেছেন; এমন সময় ঠাকুর বলিতেছেন, আমার ক্ষিদে পেয়েছে, […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : পঞ্চম পরিচ্ছেদ

১৮৮৫, ২৮শে জুলাই গণুর মার বাড়িতে ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ গণুর মার বাড়ির বৈঠকখানায় ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ বসিয়া আছেন। ঘরটি একতলায়, ঠিক রাস্তার উপর। ঘরের ভিতর ঐকতান বাদ্যের (Concert) আখড়া আছে। ছোকরারা বাদ্যযন্ত্র লইয়া ঠাকুরের প্রীত্যর্থে মাঝে মাঝে বাজাইতেছিল। রাত সাড়ে আটটা। আজ আষাঢ় মাসের কৃষ্ণা প্রতিপদ। চাঁদের আলোতে আকাশ, গৃহ, রাজপথ সব যেন প্লাবিত হইয়াছে। ঠাকুরের সঙ্গে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : চতুর্থ পরিচ্ছেদ

১৮৮৫, ২৮শে জুলাই শোকাতুরা ব্রাহ্মণীর বাটীতে ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ ঠাকুর বাগবাজারের একটি শোকাতুরা ব্রাহ্মণীর বাড়ি আসিয়াছেন। বাড়িটি পুরাতন ইষ্টকনির্মিত। বাড়ি প্রবেশ করিয়াই বাম দিকে গোয়ালঘর। ছাদের উপর বসিবার স্থান হইয়াছে। ছাদে লোক কাতার দিয়া, কেহ দাঁড়াইয়া কেহ বসিয়া আছেন। সকলেই উৎসুক – কখন ঠাকুরকে দেখিবেন। ব্রাহ্মণীরা দুই ভগ্নী, দুই জনেই বিধবা। বাড়িতে এঁদের ভায়েরাও সপরিবারে থাকেন। […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : তৃতীয় পরিচ্ছেদ

১৮৮৫, ২৮শে জুলাই শ্রীরামকৃষ্ণ ও গৃহস্থের মঙ্গলকামনা – রজোগুণের চিহ্ন এ পর্যন্ত গৃহস্বামী ঠাকুরের মিষ্ট মুখ করাইবার কোনও চেষ্টা করেন নাই। ঠাকুর স্বতঃপ্রবৃত্ত হইয়া গৃহস্বামীকে বলিতেছেন – “কিছু খেতে হয়। যদুর মাকে তাই সেদিন বললুম – ‘ওগো কিছু (খেতে) দাও’! তা না হলে পাছে গৃহস্থের অমঙ্গল হয়!” গৃহস্বামী কিছু মিষ্টান্ন আনাইয়া দিলেন। ঠাকুর খাইতেছেন। নন্দ […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ

১৮৮৫, ২৮শে জুলাই শ্রীযুক্ত নন্দ বসুর বাটীতে শুভাগমন ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ এইবার ছবি দেখিতে গাত্রোত্থান করিলেন। সঙ্গে মাস্টার ও আরও কয়েকজন ভক্ত, গৃহস্বামীর ভ্রাতা শ্রীযুক্ত পশুপতিও সঙ্গ সঙ্গে থাকিয়া ছবিগুলি দেখাইতেছেন। ঠাকুর প্রথমেই চতুর্ভুজ বিষ্ণুমূর্তি দর্শন করিতেছেন। দেখিয়াই ভাবে বিভোর হইলেন। দাঁড়াইয়াছিলেন, বসিয়া পড়িলেন। কিয়ৎকাল ভাবে আবিষ্ট হইয়া রহিলেন। হনুমানের মাথায় হাত দিয়া শ্রীরাম আশীর্বাদ করিতেছেন। […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব কথা

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ষট্‌চত্বারিংশ অধ্যায় : প্রথম পরিচ্ছেদ

ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কলিকাতানগরে ভক্তমন্দিরে ১৮৮৫, ২৮শে জুলাই শ্রীরামকৃষ্ণ ভক্তসঙ্গে বলরামের বৈঠকখানায় বসিয়া আছেন। সহাস্যবদন। এখন বেলা প্রায় তিনটা; বিনোদ, রাখাল, মাস্টার ইত্যাদি কাছে বসিয়া। ছোট নরেনও আসিয়া উপস্থিত হইলেন। আজ মঙ্গলবার, ২৮শে জুলাই, ১৮৮৫ খ্রীষ্টাব্দ, (১৩ই শ্রাবণ, ১২৯২) আষাঢ় কৃষ্ণা প্রতিপদ। ঠাকুর বলরামের বাড়িতে সকালে আসিয়াছেন ও ভক্তসঙ্গে আহারাদি করিয়াছেন। বলরামের বাড়িতে শ্রীশ্রীজগন্নাথদেবের সেবা আছে। […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!