ভবঘুরে কথা

রবীন্দ্রনাথ : পূজা ও প্রার্থনা সংগীত

রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

লও হে হৃদয়স্বামী

মন প্রাণ কাড়িয়া লও হে হৃদয়স্বামী, সংসারের সুখ দুখ সকলই ভুলিব আমি। সকল সুখ দাও তোমার প্রেমসুখে– তুমি জাগি থাকো জীবনে দিনযামী।। ………………….. রাগ: অজ্ঞাত তাল: অজ্ঞাত রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): আশ্বিন, ১৩০৩ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1896

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

শুভ্র প্রভাতে

শুভ্র প্রভাতে পূর্বগগনে উদিল কল্যাণী শুকতারা।। তরুণ অরুণরশ্মি ভাঙে অন্ধতামসী রজনীর কারা।। …………………………… রাগ: আশাবরী তাল: মুক্তছন্দ রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): চৈত্র, ১৩৩৭ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1931 স্বরলিপিকার: প্রফুল্লকুমার দাস

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মন প্রাণ কাড়িয়া লও

মন প্রাণ কাড়িয়া লও হে হৃদয়স্বামী, সংসারের সুখ দুখ সকলই ভুলিব আমি। সকল সুখ দাও তোমার প্রেমসুখে– তুমি জাগি থাকো জীবনে দিনযামী।। ……………………….. রাগ: অজ্ঞাত তাল: অজ্ঞাত রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): আশ্বিন, ১৩০৩ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1896

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

হৃদয়-আবরণ খুলে গেল

হৃদয়-আবরণ খুলে গেল তোমার পদপরশে হরষে ওহে দয়াময়। অন্তরে বাহিরে হেরিনু তোমারে লোকে লোকে, দিকে দিকে, আঁধারে আলোকে, সুখে দুখে– হেরিনু হে ঘরে পরে, জগতময়, চিত্তময়।। …………………….. রাগ: অজ্ঞাত তাল: অজ্ঞাত রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): ভাদ্র, ১৩০৩ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1896

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কোন্‌ ভীরুকে ভয় দেখাবি

কোন্‌ ভীরুকে ভয় দেখাবি, আঁধার তোমার সবই মিছে। ভরসা কি মোর সামনে শুধু। নাহয় আমায় রাখবি পিছে।। আমায় দূরে যেই তাড়াবি সেই তো রে তোর কাজ বাড়াবি– তোমায় নীচে নামতে হবে আমায় যদি ফেলিস নীচে।। যাচাই ক’রে নিবি মোরে এই খেলা কি খেলবি ওরে। যে তোর হাত জানে না, মারকে জানে, ভয় লেগে রয় তাহার […]

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বুঝি ওই সুদূরে ডাকিল মোরে

বুঝি ওই সুদূরে ডাকিল মোরে নিশীথেরই সমীরণ হায়– হায়।। মম মন হল উদাসী, দ্বার খুলিল– বুঝি খেলারই বাঁধন ওই যায়।। ………………….. রাগ: পিলু-বারোয়াঁ তাল: মুক্তছন্দ রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): 1329 রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1923 স্বরলিপিকার: আশিস ভট্টাচার্য, প্রফুল্লকুমার দাস

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

এই কি খেলা

যাওয়া-আসারই এই কি খেলা খেলিলে, হে হৃদিরাজা, সারা বেলা।। ডুবে যায় হাসি আঁখিজলে– বহু যতনে যারে সাজালে তারে হেলা।। ……………………. রাগ: আশাবরী-টপ্পা তাল: মুক্তছন্দ রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): ১১ ফাল্গুন, ১৩২৯ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): ২৩ ফেব্রুয়ারি, ১৩২৩ রচনাস্থান: শান্তিনিকেতন স্বরলিপিকার: সাহানা দেবী

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

খেলার সাথি

খেলার সাথি, বিদায়দ্বার খোলো– এবার বিদায় দাও। গেল যে খেলার বেলা।। ডাকিল পথিকে দিকে বিদিকে, ভাঙিল রে সুখমেলা।। ……………………. রাগ: পিলু-বারোয়াঁ তাল: ঠুংরী বা মুক্তছন্দ রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): ফাল্গুন, ১৩২৯ রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1923 স্বরলিপিকার: সুভাষ চৌধুরী

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মনের মধ্যে নিরবধি

মনের মধ্যে নিরবধি শিকল গড়ার কারখানা। একটা বাঁধন কাটে যদি বেড়ে ওঠে চারখানা।। কেমন ক’রে নামবে বোঝা, তোমার আপদ নয় যে সোজা– অন্তরেতে আছে যখন ভয়ের ভীষণ ভারখানা।। রাতের আঁধার ঘোচে বটে বাতির আলো যেই জ্বালো, মূর্ছাতে যে আঁধার ঘটে রাতের চেয়ে ঘোর কালো। ঝড়-তুফানে ঢেউয়ের মারে তবু তরী বাঁচতে পারে, সবার বড়ো মার যে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বলো তিনি তোমার কানে কানে

বলো বলো, বন্ধু, বলো তিনি তোমার কানে কানে নাম ধরে ডাক দিয়ে গেছেন ঝড়-বাদলের মধ্যখানে।। স্তব্ধ দিনের শান্তিমাঝে জীবন যেথায় বর্মে সাজে বলো সেথায় পরান তিনি বিজয়মাল্য তোমার প্রাণে। বলো তিনি সাথে সাথে ফেরেন তোমার দুখের টানে।। বলো বলো, বন্ধু, বলো নাম বলো তাঁর যাকে তাকে– শুনুক তারা ক্ষণেক থেমে ফেরে যারা পথের পাকে। বলো […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!