ভবঘুরে কথা

বাণী

সাধু নাগ মহাশয় বাণী

নাগ মহাশয়ের বাণী: দুই

৫১. সুখি, যত কাল থাকি, ততকাল শিখি। ৫২. পুরাণাদি সকলই সত্য, কিছুই ভুল নয়। পরমহংদেব বলিতেন, তাও বটে, তাও বটে। ৫৩. একদিন মুহম্মদ ঘুমাইয়া আছেন, শত্রুগণ তাঁহাকে ঘেড়িয়াছে। একজন তাঁহাকে তদবস্থায় মারিতে চাহিল; কিন্তু তাহাদের ভিতর বাদানুবাদের পর স্থির হইল, জাগাইয়া মারা হইবে। তখন তাঁহাকে জাগান হইল। অন্য একজন মহম্মদের বুকের উপর বল্লম ধরিয়া জিজ্ঞাসা […]

বিস্তারিত পড়ুন
সাধু নাগ মহাশয় বাণী

নাগ মহাশয়ের বাণী

১. রাখে কৃষ্ণ মরে কে! মারে কৃষ্ণ রাখে কে? ২. ভগবান দয়াবান। ৩. হাতে দৈ, পতে দৈ, তবুও বলে কৈ কৈ! ৪. এলোমেলো করিলে ধর্ম হয় না। ৫. ধ্যান করবে বনে, কোণে ও মনে। ৬. সংসারের গুরুমন্ত্র দেয় কানে, জগৎগুরু মন্ত্র দেয় প্রাণে। ৭. যাহা রাম, তাহা নাহি কাম, যাহা কাম তাহা নাহি রাম, দিবস-রজনী […]

বিস্তারিত পড়ুন
শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাণী

লোকনাথ ব্রহ্মচারীর বাণী

১ রণে বনে জলে জঙ্গলে যখনই বিপদে পরবে আমাকে স্মরণ করো আমিই রক্ষা করব। ২ আমি নিত্য জাগ্রত। তোদের সুখে সুখি, তোদের দু:খে দু:খি। আমার বিনাশ নেই, আমি অবিনশ্বর, আমি আছি, আছি, আছি। ৩ এ দেহপতের সঙ্গে সঙ্গে সব শেষ হয়ে যাবে মনে করিস না। আমি যেমনটি ছিলাম, যেমন আছি, তেমনি চিরকাল থাকবো। ৪ তিনি […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : অন্যান্য

ধারাপাত (অধ্যাত্মবিজ্ঞান) ……………………………………. ১ ১ -এ আল্লাহ্। ২ -এ রাসূল। ৩ -এ আদম। আহাদ এর দম আদম। ৪ -এ চন্দ্র। চার চন্দ্র। -সরল, গরল; আদি; রুহানী। ৫ -এ পঞ্চ আত্মা। রুহ আবাদী, রুহ যাবাদি; রুহ হায়ানী; রুহ ইনসানী; রুহের নাম রহমানী। ৬ -এ ষড়রিপু। ৭ -এ শ্বাস সমুদ্দুর। শ্বাস ছুটলেই সমুদ্দুর। শ্বাসতঃ সালাতের পূর্ব্ব তুমি। […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : চার

২০১ ডুব দিলে, বা’জান! আর ঢেউ থাকে না। ২০২ এজিদ-যার যার ভিতরের জিদ-ই, তার এজিদ। এজিদারে বধ কর। ২০৩ নিজেরে নিজে মাফ কইরা দাও। তইলে আর মাফ চাওন লাগবো না। ক্ষ্যামা আদি, ক্ষ্যামা কূল; ক্ষ্যামা রাখে জাতিকূল। ২০৩ আউযু বিল্লাহি মিনাশ্ শাইত্বানির রাজীম। শয়তানরে রাজী কইরা, বশ কইরা রাখতে অয়। বিসমিল্লাহির রহমানির রাহীম। বিসমিল্লা’য় বিশ্বের […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : তিন

১০১ মানব জীবন হইল, একটা শুক্রবারের মতো। শুক্রবার সকালে দুনিয়ার সৃষ্টি। শুক্রবার সন্ধ্যায় দুনিয়ার ধ্বংস। মাঝখানে, জুমবা কইরা গেলাম -ভালোবাসার মানুযগো লইয়া। ১০২ শুনতে শুনতে ‘সনাতন’। ১০৩ জমতে জমতে-জমজম। ১০৪ জানতে জানতে জানোয়ার। বুঝতে বুঝতে বুযূর্গান। (জানার সাথে ভক্তি যোগ হলে বুঝ হয়) ১০৫ হারতে হারতে জয়। জিততে জিততে ক্ষয়। (হার> আহার> বিহার> সমাহার) ১০৬ […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : দুই

৫১ সঙ্গ গুনে, রঙ্গ ধরে। পরশের ছোঁয়ায়, পরশ হয়। ৫২ বাঁশী বাজে ধা-ধা। রাধা’য় শোনে রা-ধা। ৫৩ সাপ, স্বপন; পোনা; -যে না কয়; সে-ই একজনা। ৫৪ বাউল-বাউলি দিয়া কয়। অন বিচারে সাধু মরে। ৫৫ ছোট্ট শব্দ ‘কল্পনা’, -কথা কিন্তু অল্প না। রাঢ়ী মাগী(অতৃপ্ত মন) স্বপ্ন দ্যহে, টেরাক ভইরা ভাতার(কাংখিত বিষয়) আহে। ৫৬ রস থাকতে কর […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : এক

১ একদিন আমি বড় হবো, নইলে কি আর তাঁরে পাবো! ২ এত খাই! তবু খাই মিটে না। খা-না। খাইতেও কইছে, না খাইতেও কইছে। ৩ নিজ গুনে, করন দোষে; সব হারাইয়া; দৈব কান্দে -মাথায় হাত দিয়া। ৪ বাদী-বিবাদী নিষ্পত্তি হইয়া গেলে, বিচারকের বিচার করার কিছু থাকে না। ৫ বাদশাহী খাওন, কুত্তারে খাওয়ান যায় না। তইলে, কুত্তার […]

বিস্তারিত পড়ুন
রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর বাণী

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাণী:

যৌবনই ভোগের কাল বার্ধক্য স্মৃতিচারণের। সময়ের সমুদ্রে আছি, কিন্তু একমুহূর্ত সময় নেই। তোমার পতাকা যারে দাও তারে বহিবারে দাও শক্তি। কী পাইনি তারই হিসাব মেলাতে মন মোর নহে রাজি। নিজের দুর্বলতার জন্যের অন্যের শক্তিকে হীন করো না। যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলো রে। কেউ বা মরে কথা বলে, আবার কেউ […]

বিস্তারিত পড়ুন
বায়েজিদ বোস্তামী বাণী

বায়জিদ বোস্তামীর বাণী:

সকল লোকে আল্লাহর কালাম বলে, আর আমি আল্লাহর পক্ষ হতে বলে থাকি। আল্লাহতালা সর্বদিক প্রেমশূন্য দেখলেন, কিন্তু বায়েজিদের মস্তিষ্ক তাঁর প্রেমে পূর্ণ পেলেন। বায়েজিদ বোস্তামীকে ‘আরশ কি’ প্রশ্ন করা হলে তিনি জবাবে বলেন, ‘আরশ আমি নিজেই’। আল্লাহতালা সর্বদিক প্রেমশূন্য দেখলেন, কিন্তু বায়েজিদের মস্তিষ্ক তাঁর প্রেমে পূর্ণ পেলেন। যার দ্বারা দিদারে ইলাহী হতে পারে, সেটাই প্রকৃত […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!