ভবা পাগলা

মায়ের পূজো করতে আমি কেমন সেজেছি।
রক্ত বস্ত্র নীল চাদরে অঙ্গ ঢেকেছি।।

মাথায় আমার ঝাঁকড়া চুল
অপমানটি সাধনার ভুল,
নিন্দা আমার কানের দুল
তাই দুলিয়ে দিয়েছি।।

কটুবাক্য কণ্ঠমালা
তাতেই মেটে মনের জ্বালা,
লাঞ্ছনা মোর দিচ্ছে দোলা
তাই এগিয়ে চলেছি।।

হাসি ঠাট্টা কানাকানি
ওই তো মায়ের অভয় বাণী,
মাভৈঃ মাভৈঃ প্রতিধ্বনি
আমি শুনতে পেয়েছি।।

কামিনী কাঞ্চন নিয়ে
মায়ের পায়ে দেই বুঝায়ে,
ভবা কয় তাই মুক্ত হয়ে
পূজো সেরেছি।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!