সুফি হাসান মিয়া চিশতী নিজামী

খেলছে পরম জীবের ঘরে, স্বরূপেতে রূপ মিসাইয়া।
দেখলো না কেউ চাইয়া তারে, দেখলো না কেউ চাইয়া।।

স্বরূপ দিয়া মানুষের গায়, ভেল গায়েবে আহাদ লুকায়
নিরাকারে আকার দেখায়, আপনি বিলিন হইয়া,
আদম আল্লাহর ছোরাত দেখি, প্রমাণ গেছে রইয়া
আলিফেরই নোক্তা ছুটে, বে-র নিচেতে লুকায় যাইয়া।।

শুরু হইলো জীবের গঠন, হামজা এবার পাইলো চেতন
শূন্য হইয়া সাঁই নিরাঞ্জন, বেড়াইছে ঘুরিয়া,
হামজা তারে আশ্রয় দিলো, আপন ঘরে নিয়া
ওরে একেতে হয় দুইয়ের সৃজন, মীমের পর্দা ঢাকনা দিয়া।।

অর্থ নাই যার সেইতো ঠেকা, বুদ্ধি নাই যার সেইতো বোকা
খুঁজিলে পাই না দেখা, সে গেছে হারাইয়া,
জীবনে দেখলাম না একদিন, হারা বস্তু চাইয়া
হাসানে কয় কেমনে পাবি, সেতো গেছে আমি হইয়া।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!