মতুয়া সংগীত

গান গাব কেবা

(তাল-গড় খেম্টা)
কি গান গাব কেবা শুনে
কি গান গাব কেবা শুনে।
লোকে কু-কর্ম কু-কথা নিয়ে, মত্ত থাকে রাত্রিদিনে।।

১। কেহ গুরুর বাক্য ধরে, সদ্ভাবেতে থাকলে পরে,
নিন্দুকে তার নিন্দা করে, থাকে আর কলঙ্কের সন্ধানে।
অন্তরেতে ঐ ভাবনা থাকে সর্ব্বক্ষণে,
তাদের নাই মন সুহ্ম দেহ রুক্ষ, সদা ভন্ডামি রয় মনে।।

২। সাধুর বেশ ভুষণ দেখিলে,
নিন্দুক যায় তার নিন্দার ছলে,
সাধুর সঙ্গে কথা বলে, পূর্ণ অহঙ্কার নিয়ে প্রাণে।
বলে কটু বাক্যে সে অকথ্য ঐ দুষ্ট বেইমানে,
এই ভাবে দস্যুত্ব করে, ঘুরে বেড়ায় গায়ের গুমানে।।

৩। মন ভাঙ্গায়ে সাধুজনার, পাঠায়ে দেয় কুমতির ঘর,
সাঁতারিয়ে অকূল পাথার, মারা যায় নিদারুন তুফানে।
তাহার সাধন ভজন হয়না কখন, দুষ্ট কলির টানে,
শেষে সারা জীবন, যায় অকারন, গুরুর করণ সাধন বিনে।।

৪। আদিত্য কয় বলি তোরে, দিন খুয়ালি জুলুম করে,
যাবি যেদিন যমের ঘরে, কি জবাব দিবি তারি সনে।
তখন কোথা রবে হিংসা গৌরব শমনের শাসনে,
হরি গোসাই বলে, গৌরব ফেলে, দীনা ঐ নাম বল বদনে।।

……………………………….
লোক শিক্ষা
রাগিনী-উল্টাকেশী

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!