রজ্জব দেওয়ান

ঘর বেঁধেছি বালুর চরে

আমি ঘর বেঁধেছি বালুর চরে।
পার ভাঙিয়া নেয় সাগরে
ভাঙন নদীর তীরে রে মন।।

মহাজনের চালান লইয়া
আইলাম লাভের আশায় তরী বাইয়া
ঠেকল মধ্যের চরে রে তরী;
মধন মাঝি আর মন ব্যাপারি
ছাড়ল তরী যুক্তি করে।।

অকূল নদীর অথই জলে
উতাল পাথাল ঢেউ খেলে রে
ভাণ্ড মালের কূলে রে মন;
স্রোতের টানে ঘূর্ণিপাকে
মাঝি মরে নৌকা ডুবে।।

অকূল নদীর বিষম তুফান
মাঝে মাঝে ডাকে যে বান
বসন্তের জোয়ারে রে মন;
লটের চরে ছয় জন চোরে
ধনরত্ন সব নিল হরে।।

মন মাঝি তোর তরী সামাল
ওপারে মায়াবিনী রাক্ষসের খাল
ফাঁদ পেতে চাঁদ ধরে রে হায়;
দয়াল কাঁদির চান্দে কয়
অসময়য়ে জাইছ না রজ্জব কাম সাগরের পারে।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!