মতুয়া সংগীত

চল চল গো সখী

(তাল-একতালা)
চল চল গো সখী, দেখবি নাকি, এক সোনার মানুষ এসেছে।
ওগো কুলবালার কুল নাশিতে, নবীন চাঁদ উদয় হয়েছে।।

শিব পুজার ফুল তুলিতে, গিয়াছিলাম সকালেতে,
দেখে এসেছি পথে, ভুবন আলো করেছে।
ভক্তগণ সঙ্গে লয়ে, পুকুর পাড়ে বসিয়ে,
প্রেমেতে উন্মত্ত হয়ে, সংকীর্তনে মেতে গেছে।।

শাক্ত শৈব কি সন্ন্যাসী, যোগ ভুলে সব যোগী ঋষি,
ঐ প্রেমে ডুবিল আসি, কুলের কি আর কুল আছে।
প্রেম সিন্ধুর জোয়ার এসে, পূর্ববঙ্গ গেল ভেসে,
কর্মী জ্ঞানী ডুবল এসে, কর্ম ফাঁস কেটে গিয়েছে।।

অগণিত রবি শশী, চরণে পড়ছে খসি,
দেখতে পাই রাশি রাশি, পদ নখরে ভাসতেছে।
চাঁদ সূর্য তমঃ হন্তি, চিত্তের আঁধার না হয় শান্তি,
আজ হইতে ঘুচল ভ্রান্তি, হরিচাঁদ উদয় হয়েছে।।

বেদ পঠিত বিপ্র যারা, ঐ প্রেমে ডুবল তারা,
নয়নে বহে ধারা, বেদ বিধি ধুয়ে গেছে।
দণ্ডিতে কর্মী জ্ঞানী, এসেছে ঠাকুর মণি,
ডুবল যত ধনী মানী, কুলের গৌরব আর কি আছে।।

হরিচাঁদ পাবার লাগি, গোলকচাঁদ হ’ল বিরাগী,
হীরামন সর্বত্যাগী, চাঁদ বলে সে কাঁদতেছে।
তারকচাঁদ চকোর হ’য়ে, সেই চাঁদের সুধা পিয়ে,
ওগো বিষয় মদে মত্ত হ’য়ে, অশ্বিনী ভুলে রয়েছে।।

………………………………………………….
অশ্বিনী গোঁসাই

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!