গৌরাঙ্গ মহাপ্রভু চৈতন্য নিমাই বৈষ্ণব

চারি সম্প্রদায় তত্ত্ব

সম্প্রদাবিহীননা মে মন্ত্রান্তে নিষ্ফলা মন্ত্রা:।
সাধনৌঘর্নে সিদ্ধান্তি কোটিকল্প শতৈরপি।।
অত কলৌ ভবিষ্যন্তি চত্বার: সম্প্রদায়ন:।
শ্রীব্রহ্ম রুদ্র সনকা বৈষ্ণবা: স্থিতিপাবন:।।
রামানুজং শ্রী: স্বীচক্রে মধ্ বাচায্যম্মুখি:।
শ্রীবিষ্ণুস্বামীনং রুস্ত্রো নিম্বাদিত্যং চতু:সন।।
(তথাহি প্রমেয় রত্মাবলী)

সম্প্রদা-বিহীনা মন্ত্র সকলি নিষ্ফলা।
বহুবিধ কার্য্যকরি নাহি কোন ফল।।
অতএব শ্রী, ব্রহ্ম, রুদ্র ও সনক।
কলিকালে চারি ধর্ম্ম বিশেষ হবেক।।

লক্ষ্মীদেবী রামানুজে প্রবর্ত্তক করে।
ব্রাহ্মা মধ্বাচার্য্যে বিষ্ণুস্বামীকে শঙ্করে।।
চতু:সন সনক যে নিম্বাদিত্যে সেই।
সম্প্রদায় প্রবর্ত্তক করিলেক এই।।

(এই জন্য শ্রী, ব্রহ্মা, রুদ্র ও সনক এই চারটি সম্প্রদায় যথাক্রমে রামানুজ (রামাৎ), মধবাচার্য্য, বিষ্ণুস্বামী ও নিম্বাদিত্য (নমাৎ) এই চারি নামে অভিহিত হইয়া থাকে।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!