প্রভু জগদ্বন্ধু সুন্দর

জগদ্বন্ধু সুন্দরের বাণী: এক

১.
মানুষ গুরু মন্ত্র দেয় কানে; জগদ্বন্ধু মন্ত্র দেয় প্রাণে।

২.
কেহ অবতার গুরু সাজিয়া আমার কাজ পণ্ড করিস না।

৩.
নিত্য নিরভিমানে কীর্তন করিও। অহঙ্কার চির ত্যাগ করিও।

৪.
ধন্য ধন্য কলিযুগ সর্ব যুগ সার। হরিনাম সঙ্কীর্তন যাহাতে প্রচার।

৫.
হরিনাম, ল’ও রে ভাই, আর অন্য গতি নাই, হের প্রলয় এ’ল প্রায়।

৬.
আত্ম-সংযমেই আত্মরক্ষা। সদা নিষ্ঠা। আত্ম-শুচিতে বপু রক্ষা হয়।

৭.
দুঃখী হরিনাম কর, যুগল কিশোর ভজন কর। নিতাই গৌরাঙ্গের নাম লও।

৮.
কেহ মূর্খ থাকিও না। মূর্খে আমার কথা বুঝিতে পারিবে না। অজ্ঞানের হরিভক্তি হয় না।

৯.
তোমরা মূর্খ থাকিও না। অজ্ঞানের হরিভক্তি হয় না, মূর্খে আমার কথা বুঝতে পারবে না।

১০.
জীব দেহে নিত্যানন্দের বাস। কোন জীবকে আঘাত করলে নিত্যানন্দকে আঘাত করা হয়।

১১.
তোরা আজ থেকে হরিনাম কর। আমি সেই নাম শুনতে শুনতে আকাশে বাতাশে মিশে যাব।

১২.
মনে রাখিস আমি তোদের হস্ত, পদ, মন, প্রাণ সব। তোমরা আমার, আমি তোদের সকলের।

১৩.
একবার রাধা রাধা রাধা বলে নাচরে রাখালগণ। ভাইরে, গোচারণ শ্রম যাবেরে শীতল হ’বে প্রাণময়।

১৪.
তোমরা কাঙ্গাল, তোমাদের খোল-করতালই ভালো। করতাল ও মৃদঙ্গ সাক্ষাৎ নিত্যানন্দ ও সীতানাথ।

১৫.
মনো প্রাণে কর জীবে কারুণ্য কল্যাণ ক্ষমা, দয়া, ধর্মদান উদ্ধার বিধান। সবে হরিনাম দান এই কল্যাণ বিধান।

১৬.
ভ্রষ্ট বুদ্ধি হয়ে পিতা-মাতার মনে কষ্ট দিতে নেই। যে সংসারে শান্তি পায় না, সে সংসার ত্যাগ করলেও শান্তি পায় না।

১৭.
তোমরা ভেব না, আমি আছি, ভয় কি? মানুষ তোমাদিগকে জটিল পথে লইতে চাইবে, কষ্ট দি চাইবে, তাতে ভিত হইও না।

১৮.
যার মুখে ভাই হরি কথা নাই, তার কাছে যেতে নাই যার মুখে দেখি হরি কথা, জগদ্বন্ধু বলেছে তাকে তোমরা ভুলো না।

১৯.
সব দেবদেবী নিদ্রিত। কেবল আমি জেগে আছি। আমি চিরকাল জেগে থাকি। আমি ঘুমালে এক পলকে প্রলয় হয়ে যায়।

২০.
চিরদিন আমার হয়ে থেকো, আমি ভিন্ন এ জগতে তোমাদের আর কেউ নাই। তোমরা দিবানিশি হরিনাম কর। হরিনামই সার।

২১.
অনন্ত বিগ্রহে আমার স্থিতি, তাই আমি অনন্তানন্তময়। অনন্ত নামকে নাম কহে অনন্তানন্তময় নামকে মহানাম কহে। আমি হরিনাম মহানাম নাম মাত্র।

২২.
এটা প্রলয়কাল, নাম সংকীকীর্তনই সত্য। এ যুগে একমাত্র হরিনামই রক্ষার উপায়। ওগো, নামের যে বড় অভাব। কেবল হরিনাম কর, হরিনাম কর।

জগদ্বন্ধু সুন্দরের বাণী: দুই>>

……………………………….
আরো পড়ুন:
জগদ্বন্ধু সুন্দরের বাণী: এক
জগদ্বন্ধু সুন্দরের বাণী: দুই

………………………………………….
আরো পড়ুন:
স্বামী পরমানন্দের বাণী: এক
স্বামী পরমানন্দের বাণী: দুই
স্বামী পরমানন্দের বাণী: তিন
স্বামী পরমানন্দের বাণী: চার
স্বামী পরমানন্দের বাণী: পাঁচ
স্বামী পরমানন্দের বাণী: ছয়

……………….
আরও পড়ুন-
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: এক
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: দুই
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: তিন
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: চার
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: পাঁচ
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: ছয়
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: সাত
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: আট
সীতারাম ওঙ্কারনাথের বাণী: নয়

……………….
আরও পড়ুন-
মহানবীর বাণী: এক
মহানবীর বাণী: দুই
মহানবীর বাণী: তিন
মহানবীর বাণী: চার
ইমাম গাজ্জালীর বাণী: এক
ইমাম গাজ্জালীর বাণী: দুই
গৌতম বুদ্ধের বাণী: এক
গৌতম বুদ্ধের বাণী: দুই
গৌতম বুদ্ধের বাণী: তিন
গৌতম বুদ্ধের বাণী: চার

গুরু নানকের বাণী: এক
গুরু নানকের বাণী: দুই
চৈতন্য মহাপ্রভুর বাণী
কনফুসিয়াসের বাণী: এক
কনফুসিয়াসের বাণী: দুই

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন- voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!