ফকির লালন সাঁই

জ্বাল ঘরে চটিলে হয় সে

জ্বাল ঘরে চটিলে হয় সে জাতনাশা।
তাঁর কি ছাড় আশার আশা।।

হাঁড়ি কেউ চটে কেউ রয়
মনে দেখে ধোঁকা হয়,
বুঝি পূর্বেকার ফেরে ফোরে
পড়ে সে রে তলা ফাঁসা।।

ও সে পোড়া চাড়াকে
চার যুগে মিশে না খাকে,
গুরত্যাগী মনবিবাগী
তার তো ঘটে সেই দশা।।

কেউ কুমারকে দোষায়
কেউ মাটি খারাপ কয়,
লালন বলে পাগলা ছেলে
বোঝা কঠিন সাধ-ভাষা।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!