বিজয় সরকার

তুমি জানো না রে বাঁশি
গোপনে গোপনে তোমায় কতো ভালোবাসি।
লোকের চোখের আড়াল থেকে
দেখি তোমার মুখের হাসি।।

সে দিন ফালগুনের পূর্ণিমাসন্ধ্যায়
ঢালে সুগন্ধ রজনীগন্ধায়
কাজের শেষে সাঁঝের বেলা
মনের সাথে করি খেলা
আমার ফুলবাগে তুমি একেলা দেখা দিলে আসি।।

তোমার আঁখির দৃষ্টি প্রাণমাতানো
যেন পাখি ধরা ফাঁদ পতানো
সেই চাহনির বিলাস রঙ্গে
আমার মন বিহঙ্গের অঙ্গে
এসে জড়াইলো সঙ্গে সঙ্গে প্রেম পিরিতের ফাঁসি।।

তোমায় কতো আমায় ভালো লাগে
প্রিয় তা কি তোমার মনে জাগে
মন নিয়ে মন বুঝতে যদি
নিরদয়নিঠুর দরদী
আমি তোমার ব্যথায় নিরবধি অকূল নীরে ভাসি।।

পাগল বিজয় কয়, তার চপল ছন্দ
বিরহীর নয়ন আনন্দ
দূরে দূরে থাকে যতো
তবু যে মোর আপন কতো
হবো কি তোমার মন মতো হে চিরউদাসী।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!