রাধারমণ দত্ত

নেচে নেচে আওহে শচীর

নেচে নেচে আওহে শচীর দুলাল গৌর কিশোরা।
তুমি আসলে আনন্দ হবে নিরানন্দ রবে না
কটিতে কিঙ্কিণি সাজে চরণে নুপুর বাজে
অঙ্গে শোভে পীত ধড়া।
গৌরার গলে শোভে বনমালা মস্তকে মোহনচূড়া।।
পুর্বে ছিল ননীচোরা ব্ৰজগোপীর মনোহরা দুই নয়ন বাঁকা
গৌরার শ্যামল অঙ্গে মাখামাখি মন হইয়াছে মাতোয়ারা।।
ভাইবে রাধারমণ বলে সবে বুঝি পাইতে পারে
আমার কপাল পোড়া
তুমি ভাবের গৌর কল্পতরু কইরো না চরণ ছাড়া।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!