মতুয়া সংগীত

পাগলের ডঙ্কা বাজে

(তাল- গড়খেমটা)
পাগলের ডঙ্কা বাজে হরিচাঁদ বলে
নগরে জয়ধ্বনি করে সকলে।

রামাগণে বামা স্বরে করে মঙ্গল আচরণ,
চৌদ্দ মাদল সঙ্গে লয়ে অবধৌতের আগমন,
প্রেমরসে হয়ে মগন, করে মধুর সংকীর্তন,
প্রেমের পাগল যতজন, মিশে গেছে এক কালে সকলে।

শঙ্খ বাজে ঘণ্টা বাজে, কংশ কাঁসি করতাল,
ভৈরব ভৈরবী রাগে ভেরীতে ধরেছে তাল,
রুদ্র তাল, ব্রহ্ম তাল, মৃদঙ্গে ধরেছে তাল,
জয় ঢোল টিকারা তাল, হরিনামে উঠল তাল,
তারা মাতালো আকাশ পাতাল, মদ খেয়ে যেন মাতাল,
কেউ নাচে তাল বেতালে, সুতালে।

উড়িতেছে জয় পতাকা, হরিনামের হিল্লোলে,
ছিলরে শমনের দখল গেলরে, এককালে,
শমন দূতে বলে রাজ্য নিল পাগলে,
রাজা প্রজা সকলে মিশে গেছে ঐ দলে,
কত যোগীজনা যোগ ভুলে, যজ্ঞোপবীত ফেলে,
নাচে দু’বাহু তুলে, ভাসে দু’নয়ন জলে,
প্রেম কহ; রাধে বলে দেয় গড়াগড়ি ভুতলে, সেতালে।

পাষণ্ড দলন হরিনাম লয়ে পাগল আসিল,
মাতায়ে হিন্দু যবন, পাষণ্ড সব শাসিল,
রাজ ভয় নাশিল, বিঘ্ন বিনাশিল,
দুঃশীল সুশীল ঐ দলে সব পশিল,
তারা রস ভরে রসিল, মধু রসের বাণী বলে,
হরে হরে ভিড় দিল, সকলে।

জয় হরিবল গৌর হরিবল, পাগলের হুঙ্কারধ্বনি,
যেন মদে মত্ত সিংহ বীর্য শুনে সে সিংহ ধ্বনি,
হৃদয় ধরে সেই ধ্বনি, মহানন্দ দেয় ধ্বনি,
গুরুচাঁদের জয়ধ্বনি, তারকচাঁদ তা কৈ বলে, তা ভুলে।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!