মতুয়া সংগীত

ফরিদপুরেতে হল লাট

মহাত্মা শ্রীশশীভূষণের চাকুরী প্রাপ্তি

ফরিদপুরেতে হল লাট দরবার।
ইতিপূর্ব্বে বলিয়াছি সেই সমাচার।।
চাকুরী লাগিয়া শশী কিছু পূর্ব্বে তার।
নানাস্থানে ঘরে কএ করি দরবার।।
নমঃশূদ্র জাতি বলি মিলেনা চাকুরী।
প্রভুর নিকটে বলে ‘দুঃখে যাই মরি।।”
প্রত্রের দেখিয়া দুঃখ দয়াল ঠাকুর।
নিজ গুণে করিলেন মনোব্যাথা দূর।।
মীডরে ডাকিয়া কহে দুঃখের বারতা।
পূর্ব্বভাগে লিখিয়াছি সেই সব কথা।।
লাট দরবারে মীড সমস্ত খুলিয়া।
লাটেরে সকল কথা বলে বুঝাইয়া।।
লাটের আদেশে তাই মিলিল চাকুরী।
এতদিন প্রভু তাহা রাখে চুপ করি।।
কি জানি প্রভুর মনে কিবা ইচ্ছা ছিল।
যেদিন কমিশনার এসে ফিরে গেল।।
চাকরী-সনদ এল ঠাকুরের বাড়ী।
বড়বাবু যাবে তাহা জলপাইগুড়ি।।
সেইখানে হ’ল তিনি সাব রেজিষ্ট্রার।
সকলে সন্তুষ্ট হল শুনি সমাচার।।
জয় জয় ধ্বনি উঠে জুড়ি দর্ব্বদেশ।
এ জাতির দুঃখ-রাত্রি এতদিনে শেষ।।
চাকুরী পাইয়া বাবু দেশ ছাড়ি যায়।
সবে কহে ধ্য ধন্য প্রভুর তনয়।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!