ক্বারী আমির উদ্দিন

ফুটপাতে থাকিয়া অনাহারে- মানুষ মরে।
সুখে কিবা দুঃখে আছে, কে যায় কোনদিন তাঁদের কাছে
ধর্ম্মে কি ইহাতে নিষেধ করে- মানুষ মরে।।

এক আল্লার সৃষ্টি করা, আদম সন্তান নয় কি ওরা
সর্বহারা অসহায়ের তরে,
ওদের কেউ রাস্তায় চলে, আছাড় খেয়ে পড়ে গেলে
জাত যাবে তাই কেউনা হাতে ধরে- মানুষ মরে।।

আমাদেরে যখন দেখে, করুন চোখে চেয়ে থাকে
ঝর ঝরাইয়া চোখের পানি ছাড়ে,
নাই ঘরবাড়ি টাকা কড়ি, তাঁদের কত আহাজারী
কে শুনিবে বলিবে কার ধারে- মানুষ মরে।।

আশ্রয় দিবে কেউ কি বলে, শীত গরম আর ঝড় বাদলে
জীবন কাটায় দুঃখের সাগরে,
সমান অধিকার পাইয়া, ষোলআনা দাবী নিয়া
জন্মিয়াছে তারাও সংসারে- মানুষ মরে।।

একই মাতা একই পিতা, ভুলে গেছি তাঁদের কথা
আমাদের ভাই ভগ্নি হয় বিচারে,
মোহাম্মদ রাছুউলুল্লা, গরীবদের পক্ষে ছিলা
মানব ধর্ম্ম শিখাইলেন সবারে- মানুষ মরে।।

কারোও মনে আনন্দ দান, এক হাজার হজ্বের সমান
হাদিছে বলেছেন পয়গাম্বরে,
সত্য ধর্ম্মের সুন্দর দাওয়াত, কারোও মনে দিওনা আঘাত
সে আঘাত লাগে কাবার ঘরে- মানুষ মরে।।

আমাদের মুখের পানে চায়, ছেলে মেয়ে কোলে উঠায়
কেউনি সহায় হয় বাচ্চাঁদের তরে,
শুভদিনে ঈদ যে আসে, তাঁদের মন আল্লার আরশে
ছেলে মেয়ে কান্দে জারে জারে- মানুষ মরে।।

ওরাও এসেছে ভবে, ওদের দাবী মানতে হবে
ইনছাফ দিয়া ইনছান আল্লায় গড়ে,
শান্তি পাইয়া ধর্ম্ম মানি, ভাই ভগ্নিদের চোখে পানি
নামাজ রোজায় যাইমু বেহেস্তের ঘরে- মানুষ মরে।।

মেয়েরা পেটের ফিকিরে, ন্যাস্থি পথে যাইতে পারে
কাজ দিবে কি নাউজুবিল্লা পড়ে,
মৌলভি মুন্সী মৌলানা, এদের কথা কেউ বলেনা
তাঁরা শুধু নিজের পকেট ভরে-মানুষ মরে।।

অসহায়ে জন্ম লইয়া, জীবন ভরা দুঃখ পাইয়া
ঋণী বানাইল আমাদেরে,
খুঁজিয়া ও পায়না ভিক্ষা, হইলনা আর শিক্ষা দীক্ষা
ওয়াজ মাহফিল ধনী লোকের ভিড়ে- মানুষ মরে।।

আমির উদ্দিন গাইতেছে, গরীবদের পক্ষে আছে
স্মরণ করিয়া দয়াল নবীজিরে,
নূর নবীজির সাম্যের বাণী, দেখাও সবে মুসলমানী
ওদেরে আনিয়া তুলো ঘরে- মানুষ মরে।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!