রাধারমণ দত্ত

বাঁশি কে বাজাইয়া যায়

বাঁশি কে বাজাইয়া যায়–
এমন সুখের বাঁশিয়ে রাধারে জাগায়।
আর রাস্তায় চলিয়ে কিষ্ণে
বাঁশিয়ে দিলা টান।
ওয়রে ঘরে থাকি শ্ৰীরাধিকার
উড়াইলা পরান।।
আর মন্দিরে সামাইয়া কিষ্ণে
চারিপানে চায় :
ওয়রে হাতের বাঁশি ভূমিত থইয়া
রাধারে জাগায়।।
আর ঘুম ঘুম করিয়া কিষ্ণে
মুখে দিলা পান।
ও রাধারমণ বলে,
শ্ৰীরাধিকায় যৈবন কইলা দান।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!