ভবঘুরেকথা
সতীমাতা ভবেরগীত কর্তাভজা

বাইশ ফকিরের নাম

অল্পকিছু দিনের মধ্যেই আউলচাঁদ মহাপ্রভুর মহিমার কথা চারিদিকে ছড়িয়ে পরেছিল এবং তাঁর প্রবর্তিত কর্তাভজন সত্যধর্মের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে সকল স্তরের বহু মানুষ তার ভক্ত হয়েছিল, তার মধ্যে একান্ত অনুগতভক্ত ছিল বাইশ জন, এরাই বাইশ ফকির নামে পরিচিত। বলাবাহুল্য এই বাইশ জনই সাধক ছিলেন এবং সাধনা ও গুরুর প্রতি অটল ভক্তি বিশ্বাস থাকায় গুরুর কৃপা লাভ করে ঐশ্বরিক ক্ষমতার অধিকারী হয়েছিলেন। বাইশ ফকিরের নাম যথাক্রমে-

শুন সবে ভক্তিভাবে নাম মালা কথা,
বাইশ ফকিরের নাম ছন্দেতে গাঁথা।

জগদীশপুর নিবাসী বেচু ঘোষ নাম,
শিশুরাম কানাই নিতাই নিধিরাম।
ছোট ভীমরায় বড় রাম নাথ দাস,
দেদোকৃষ্ণ গোদাকৃষ্ণ মনোহরদাস।

খেলারাম ভোলা নাড়া কিনু ব্রহ্মহরি,
আন্দিরাম নিত্যানন্দ বিশু পাচকড়ি।
হটু ঘোষ গোবিন্দ নয়ান লক্ষীকান্ত,
ইহারাই ভক্তি প্রেমে আতিশয় শান্ত।

আউলচাঁদ মহাপ্রভু এই বাইশজন ভক্ত এবং রামশরণ ও সতীমাকে নিয়ে কর্তাভজন সত্যধর্মেয় ধর্মীয় বৈঠক অনুষ্ঠানের প্রবর্তন করেন ঐ দিন ছিল শুক্রবার। আউলচাঁদ মহাপ্রভু আধ্যাত্মিকতার নিরিখে শুক্রবারকে উপাসনার অতি পবিত্র দিন নির্দ্ধারণ করে শুক্রবারেই প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠান করেছিলেন এবং ভক্তগণের এই দিন বিশেষভাবে পালনের জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন। তাই কর্তাভজন সত্যধর্মালম্বী ভক্তগণ শুক্রবারকে অতিপবিত্র ও উপাসনার দিন হিসেবে মেনে চলে।

…………………………………..

সূত্র ও কৃতজ্ঞতা:
১. ভবের গীত
২. কর্তাভজা সত্যধর্ম

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

…………………..
আরও পড়ুন-
কর্তাভজা সত্যধর্মের ৩০ ধারা
রামশরণ ও সতীমার দীক্ষাগ্রহণ
সতী মা
কর্তাভজা সত্যধর্ম
কর্তাভজার দশ আজ্ঞা
গৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর আবির্ভাব
ডালিম তলার মাহাত্ম্য
বাইশ ফকিরের নাম
কর্তা
দুলালচাঁদ
কর্তাভজা সত্যধর্মের পাঁচ স্তম্ভ
সাধন-ভজন ও তার রীতি নীতি
ভাবেরগীত এর মাহাত্ম্য
কর্তাভজা সত্যধর্মের আদর্শ ও উদ্দেশ্য

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!