মতুয়া সংগীত

ভোলা মন সদাই

(তাল-গড়খেমটা)
ভোলা মন সদাই কর কুমন্ত্রণা
চিনলি না পরম তত্ত্ব বিষয় মত্ত, তাই কর সদাই ভাবনা।

এসে এই ভবের হাতে, গেলি তুই বেগার খেটে,
হলি তুই নগদা মুটে, ওরে আমার মন।
কেন মত্ত হলি কাম হাউসে, কোনদিন শমন এসে,
বান্ধিবে কসে, কি উপায় করবি শেষে, দিবে সে অশেষ যন্ত্রণা।

কেনে কও আপন আপন, এ যে সে নিশার স্বপন,
বুঝে দেখ ও ভোলা মন, আপন কেউ হবে না।
মন তোর দেহে আছে যে ছয়জনা, তারা তোর আপন হবে না,
কিসে তুই কস আপনা, তাও কেনে বুঝে দেখ না।।

দশে ছয় ষোল আনা, করতেছে কুমন্ত্রণা,
তাইতে মন হল না, তোর হরিনাম সাধনা,
এবার গুরুচাঁদের চরণ তরী, মনেতে চিন্তা করি,
মুখে বল হরি হরি, অন্য আশা আর কর না।।

হরিচাঁদ পারের বন্ধু, লয়ে সব ভক্তবৃন্দ,
ক’রতে পার ভবসিন্ধু, করতেছে মন্ত্রণা।
দেখে গোঁসাই গোলক ডেকে বলে, আয় মহানন্দ যাই সকলে,
গোপালে ভবে ভোলে, পারে যাওয়া আর হবে না।।

……………………………………………………..
শ্রীগোপাল চন্দ্র বিশ্বাস

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!