শাহ্ আব্দুল করিম

মনের দুঃখ কার কাছে জানাই
গরিব কুলে জন্ম আমার আজও তা মনে পরে,
ছোটবেলা বাস করিতাম ছোট্ট এক কুঁড়ে ঘরে
দিন কাটিতো অর্ধাহারে রোগে কোন ঔষধ নাই।।

এক সঙ্গে জন্ম যাদের ১৩২৮ বাংলায়
আনন্দে খেলে তারা ইস্কুলে পড়িতে যায়,
আমার মনের দুর্বলতায় একা থাকা ভালো পাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

পিতা-মাতার ছেলে সন্তান একমাত্র আমি ছিলাম
জীবন বাঁচাবার তাগিদে প্রথম চাকরিতে গেলাম,
মাঠে থাকি গরু রাখি ঈদের দিনেও ছুটি নাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

সব-সময় গান গাইতাম মনের এই স্বভাব ছিলো
আমাকে নয় গানকে তখন অনেকেই বাসত ভালো,
রাগ-রাগিণী ভালো ছিলো রচনা করিয়া যাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

চাকরি যখন ছেড়ে দিলাম হাতে নিলাম একতারা
দিবা-রাত্র গান গাই লোকে বলে বেশরা,
উদাস মনের চিন্তা-ধারা মন যাহা চায় তাহা গাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

গ্রামের মুরব্বি আর মোল্লা সাহেবের মতে
ধর্মীয় আক্রমণ এলো ঈদের দিনে জামাতে,
দোষী হই মোল্লাজির মতে পরকালেও মুক্তি নাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

নিষেধ-মানা না মানিয়া কুলের বাহির হইলাম
একতারা সঙ্গে নিয়া ঘর-বাড়ি ছেড়ে দিলাম,
ঘর-ছাড়া বাউল সাজিলাম সকলেরই করিম ভাই
মনের দুঃখ কার কাছে জানাই।।

………………………………
আরও পড়ুন:
শাহ্ আব্দুল করিম: জীবনী ও গান

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!