মতুয়া সংগীত

যদি তরবি ভবপার

(তাল-একতালা)
যদি তরবি ভবপার, হরিবল মনরে দুরাচার।
যাবে শমন শঙ্কা, মারবি ডঙ্কা, হেলায় হবি ভবপার।

ভাই বন্ধু পরিজন আছে, আছে যত ধন জন,
সকল ফেলে যেতে হবে, দিয়া বিসর্জন,
কর অন্তিমকালের ধন উপার্জন, নির্জনে তার সাধন কর।

কারে বলতেছিস আপন, এ তোর মায়াময় স্বপন,
পদে মন সমর্পণ কর, ছেড়ে দে বৃথা আলাপন,
করে নৃত্য সংকীর্তন, নিরূপণ সুখেতে কাল যাপন কর।

ছেড়ে মনের অহংকার, হরি বলে কর হুঙ্কার,
ছোয় না সে নাম নিলে অন্তিমকালে, কালের কিঙ্কর,
এবার সকাতরে ডাক মন তারে, শঙ্করী কিঙ্করী যার।

দেখে পাপের তরঙ্গ, হরি হয়ে গৌরাঙ্গ,
করেতে করঙ্গ করেছেন কত রঙ্গ,
এবার দেখে জীবের রঙ্গ ভঙ্গ, ওড়াকান্দি অবতার।

মহানন্দ ডেকে কয়, ওরে হরে দুরাশয়,
গিয়া ওড়াকান্দি ধর গে কাঁদি গুরুচাঁদের পায়,
হবে ভব সাগর গোষ্পাদাকার ডিঙ্গাইয়া হবি পার।
……………………………………………………..
হরিবর সরকার

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!