রাসমণি

রাসমণি

কথিত আছে, একদিন বৈশাখ মাসের দুপুরে রাসমণি দেবী সেখানকার দলনায় দুলে একটি ডুমুর গাছের তলায় বসে বিশ্রাম করার সময় লক্ষ্য করেন যে, একটি ডুমুরগুচ্ছের মধ্যে দু-তিনটি ডুমুরের ফুল ফুটে আছে। রাসমণি দেবী তাঁর মাতার কাছে শুনেছিলেন যে, ডুমুরের ফুল দেখা যায় না, তবে যদি কেউ দেখতে পায়, নিশ্চয়ই ধনী ও সুখী হয়।

রাসমণি দেবী তাঁর সহচরীদের কাছে এই ডুমুরের ফুল দেখার কাহিনী বিবৃত করলে, কেউই সেকথা বিশ্বাস করেনি। তখন রাসমণি দেবী তাদের নিয়ে সেখানে গিয়ে, আঙুল দেখিয়ে ডুমুর-ফুলগুলি দেখালেও তারা কিন্তু কেউই সেগুলি চাক্ষুষ দেখতে পায় নি; বরং তার জন্য রাসমণি দেবীর কথায় তাদের অবিশ্বাস আরো বৃদ্ধি পায়।

এই ঘটনায় রাসমণি দেবী তাঁর মাতার কাছে দৃঢ়ভাবে ব্যক্ত করেন। মাতা রামপ্রিয়া দেবী তখন বালিকা কন্যার কথাই বিশ্বাস করে রাসমণি দেবীকে আশীর্বাদ করে বলেছিলেনঃ “মা,তুমি রাজরানী হবে!” বলা বাহুল্য, মাতার এই আশীর্বাদ রাসমণি দেবীর জীবনে বর্ণে বর্ণে সত্য হয়েছিল।

‘রানী রাসমণি’ নামে অভিহিতা হন এবং সরকারি খেতাব ছাড়াই ইতিহাসে ‘রানী রাসমণি’ নামে পরিচিতা হন।

মাতা রামপ্রিয়া দেবীই আদর করে তাঁর কন্যার নাম প্রথমে রেখেছিলেন ‘রানী’। দেড় বছর বাদে তাঁর নাম রাখেন ‘রাসমণি’। কিন্তু লোকে অনেক সময় তাঁর দুটি নাম একত্র করে ‘রানী রাসমণি’ বলে ডেকে স্নেহ প্রকাশ করত। পরবর্তী কালে দানশীলা ও অভয়াদাত্রীরূপে তিনি জগতের কাছে ‘রানী রাসমণি’ নামে অভিহিতা হন এবং সরকারি খেতাব ছাড়াই ইতিহাসে ‘রানী রাসমণি’ নামে পরিচিতা হন।

শ্রীধাম বৃন্দাবনে শ্রীকৃষ্ণের রাসলীলা চলছে এবং গোপীরা কৃষ্ণকে ঘিরে নৃত্য করছেন। কালো রূপের সঙ্গে বিজলীর তরঙ্গ মিলে চারদিক আলোকিত করে রেখেছে। এমন সময় একটি বালিকা নৃত্যরতা অবস্থায় রামপ্রিয়া দেবীর কোলে এসে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

তাঁর রাসমণি’ নামকরণ সম্পর্কে জানা যায় যে, একদিন রাত্রে তাঁর মাতা রামপ্রিয়া দেবী একটি অদ্ভুত স্বপ্ন দেখেন। তিনি দেখেন যে, শ্রীধাম বৃন্দাবনে শ্রীকৃষ্ণের রাসলীলা চলছে এবং গোপীরা কৃষ্ণকে ঘিরে নৃত্য করছেন। কালো রূপের সঙ্গে বিজলীর তরঙ্গ মিলে চারদিক আলোকিত করে রেখেছে। এমন সময় একটি বালিকা নৃত্যরতা অবস্থায় রামপ্রিয়া দেবীর কোলে এসে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

স্বয়ং শ্রীভগবানের এই রাসলীলা দর্শন এবং সেই বালিকাটিকে নিজ কোলে গ্রহণ করার পরেই তাঁর নিদ্রাভঙ্গ হয় এবং দিব্যানুভূতিতে তিনি ডুবে থাকেন। রাসলীলার রস-রহস্যের স্মৃতিরূপে পরর্বতী কালে রামপ্রিয়া দেবী তাঁর কন্যার নাম রাখেন ‘রাসমণি,।

………………….
পুনপ্রচারে বিনীত: প্রণয় সেন

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- [email protected]
……………………………….

……………………..
আরো পড়ুন:
মা সারদা দেবী
প্রজ্ঞাপারমিতা শ্রীশ্রীমা সারদা
বহুরূপিনী বিশ্বজননী সারদামণি
মা মনোমোহিনী
শ্রীরামকৃষ্ণের সান্নিধ্যে সপ্তসাধিকা
মাতৃময়ী তিনরূপ
মা আনন্দময়ী
আনন্দময়ী মায়ের কথা
ভারত উপাসিকা নিবেদিতা
রাসমণি
নিরাহারা যোগিনী মায়ের সন্ধানে
পূণ্যশীলা মাতা কাশীমণি দেবীর সাক্ষাৎকার
আনন্দময়ী মা
মা মারিয়াম :: পর্ব-১
মা মারিয়াম :: পর্ব-২
মা মারিয়াম :: পর্ব-৩
মা মারিয়াম :: পর্ব-৪
মীরার কথা
অলৌকিক চরিত্র মাদার তেরেসা
মা আনন্দময়ীর কথা
বৈষ্ণব সাধিকা যশোদা মাঈ
আম্মার সঙ্গলাভ
শ্রীশ্রী সাধিকা মাতা
জগৎ জননী ফাতেমা-১
জগৎ জননী ফাতেমা-২
জগৎ জননী ফাতেমা-৩
জগৎ জননী ফাতেমা-৪
জগৎ জননী ফাতেমা-৫
জগৎ জননী ফাতেমা-৬
জগৎ জননী ফাতেমা-৭
জগৎ জননী ফাতেমা-৮
জগৎ জননী ফাতেমা-৯
জগৎ জননী ফাতেমা-১০
জগৎ জননী ফাতেমা-১১
জগৎ জননী ফাতেমা-১২

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!