ভবঘুরে কথা
ফকির লালন সাঁইজির চল্লিশা

আগামী ২৪-২৫ নভেম্বর ২০১৯ ইং ফকির লালন সাঁইজির ১২৯তম তিরোধানের ৪০ দিন উপলক্ষ্যে ২ দিনব্যাপী স্মরণ উৎসব আয়োজন করা হয়েছে, সে উপলক্ষ্যে সকল ভক্তদের নিমন্ত্রণ।

মানুষ তত্ত্ব যার সত্য হয় মনে
সে কি অন্য তত্ত্ব মানে।।

সুধি,

আলেকসাঁই
বিশ্বমানবতার জ্ঞান প্রেমসুধাকর বাউল সম্রাট ফকির লালন সাঁইজির ১২৯তম তিরোধান এর ৪০ দিন উপলক্ষ্যে দুই দিনব্যাপী সাধুসঙ্গ।

আগামী ২৪ ও ২৫ শে নভেম্বর ২০১৯ইং (১০ ও ১১ই অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ বাংলা) রোজ- রবি ও সোমবার জ্ঞানুধায় সিক্ত হওয়ার আশায় বীর মুক্তিযোদ্ধা অখণ্ড দম সাধক লালন অনুসারী ফকির হুমায়ুন সাধু গুরুর আখড়া বাড়িতে সাধুসঙ্গের আয়োজন করা হয়েছে।

উক্ত সাধুসঙ্গে লালন ভক্ত ও অনুসারীগণ উপস্থিত হয়ে ধন্য করবেন। পত্রে আহ্বান ও নিমন্ত্রণ জানানোর জন্যে ঘোর অপরাধী তবে সাধু দয়াময়।

বিনয়ান্তে-
মিলন ফকির

লালন সাঁইজির বাণী পরিবেশনায়:
কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, ফরিদপুর, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর ও নরসিংদীসহ স্থানীয় আখড়া বাড়ির শিল্পীবৃন্দ।

সময়:
রাত ৯ ঘটিকায় শুরু হয়ে অনুষ্ঠান চলবে সারা রাতব্যাপী

তারিখ:
২৪-২৫ নভেম্বর ২০১৯ ইং
১০-১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
রোজ রবি ও সোমবার

স্থান:
হুমায়ুন সাধুর আখড়াবাড়ি
উত্তর মির্জা নগর, খানাবাড়ি,
রায়পুরা, নরসিংদী, বাংলাদেশ।

আয়োজনে:
আখড়াবাড়ির ভক্তবৃন্দ

যোগাযোগ:
সভাপতি : ০১৭২৭ ৬৫২২৫৮
আখড়াবাড়ি: ০১৭১৪৮৯০১৮২
সাধারণ সম্পাদক: ০১৭৩৯৫৫৫৫০৬

: যাতায়াত :

বাস সার্ভিস (ঢাকা থেকে) :
ঢাকার গুলিস্তান, সায়দাবাদ থেকে বাস দিয়ে সরাসরি নরসিংদী। নরসিংদী বাসস্ট্যান্ডে নেমে অটো বা সিএনজিতে করে খানাবাড়ি। ৯ কিলোমিটার রাস্তা। যে কাউকে হুমায়ুন সাধুর আখড়ার কথা বললেই দেখিয়ে দিবে সিএনজি বা অটোর স্ট্যান্ড।

এছাড়া, সিলেট রোডে বারৈচা বাস স্ট্যান্ড নেমে সিএনজি করে শ্রীরামপুর রেলগেট হয়ে খানাবাড়ি যাওয়া যায়। অথবা নরসিংদী ভেলানগর নেমে রিক্সায় আড়শিনগর গিয়ে সিএনজি/অটোতে খানাবাড়ি।

ট্রেন সার্ভিস (ঢাকা থেকে):
দুপুরের ট্রেন ১ টায় ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে ছাড়ে চট্টলা এক্সপ্রেস। চাইলে আপনি এয়ারপোর্ট থেকেও ১:২০ মিনিটে উঠতে পারেন। ট্রেন নরসিংদী পৌঁছালে নেমে আরশিনগর থেকে সিএনজিতে খানাবাড়ি যেতে হবে।

বিকালের ট্রেন ৫টায় তিতাস সরাসরি খানাবাড়ি রেলস্টেশন হয়ে যায়। খানাবাড়ি নেমে হেঁটে আড়শিনগর গিয়ে সিএনজি বা অটোতে করে হুমায়ুন সাধুর আখড়ায়। কর্ণফুলি ট্রেনেও সরাসিরি খানাবাড়ি রেলস্টেশনে নেমে যাওয়া যায় খানাবাড়ি।

গুরু রতি করো সাধনা

…………………………………..
চিত্র:
ফকির লালন সাঁইজির প্রকৃত কোনো ছবি নেই। লেখাতে ব্যবহৃত ছবিটি লালন ফকিরের কাল্পনিক একটি ছবি মাত্র। বহুল ব্যবহৃত হলেও এই ছবির সাথে লালন সাঁইজির আদৌ কোনো যোগসূত্র খুজে পাওয়া যায় না।

নির্মাতা
ভবঘুরে কথা'র নির্মাতা

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!