সক্রেটিস

সক্রেটিসের বাণী:

১.
জ্ঞানই পুণ্য।

২.
নিজেকে জান।

৩.
বিস্ময় হল জ্ঞানের শুরু।

৪.
সত্যপ্রীতি বিজ্ঞতার লক্ষ।

৫.
তুমি যা হতে চাও তা-ই হও।

৬.
কঠিন যুদ্ধেও সবার প্রতি দয়ালু হও।

৭.
বন্ধু হচ্ছে দুটি হৃদয়ের একটি অভিন্ন মন।

৮.
মৃত্যুই হল মানুষের সর্বাপেক্ষা বড় আশীর্বাদ।

৯.
অপরীক্ষিত জীবন নিয়ে বেঁচে থাকা গ্লানিকর।

১০.
ব্যস্ত জীবনের অনুর্বরতা সম্পর্কে সতর্ক থাকুন।

১১.
অন্যায় করে লজ্জিত না হওয়াটা আরেক অন্যায়।
১২.
তুমি কিছুই জান না এটা জানাই জ্ঞানের আসল মানে।

১৩.
টাকার বিনিময়ে শিক্ষা অর্জনের চেয়ে অশিক্ষিত থাকা ভাল।

১৪.
প্রকৃত জ্ঞান নিজেকে জানার মধ্যে, অন্য কিছু জানার মধ্যে নয়।

১৫.
সবচেয়ে বড় জ্ঞানের পরিচয় হল, তুমি কিছুই জানো না-এটা জানা।

১৬.
যে সৎ ব্যক্তি অসৎ ব্যক্তির পেছনে ঘুরে, সে সত্যিই করুণার পাত্র।

১৭.
তারা জানে না যে তারা জানে না, আমি জানি যে আমি কিছু জানি না।

১৮.
পোশাক হলো বাইরের আবরণ, মানুষের আসল সৌন্দর্য হচ্ছে তার জ্ঞান।

১৯.
বন্ধুত্ব কর ধীরে ধীরে, কিন্তু যখন বন্ধুত্ব হবে এটা দৃঢ় কর এবং স্থায়ী কর।

২০.
আমি কাউকে কিছু শিক্ষা দিতে পারব না, আমি শুধু তাদের চিন্তা করাতে পারব।

২১.
পৃথিবীতে শুধুমাত্র একটিই ভাল আছে, জ্ঞান। আর একটি-ই খারাপ আছে, অজ্ঞতা।

২২.
সেই সাহসী যে পালিয়ে না গিয়ে তার দায়িত্বে থাকে এবং শত্রুদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে।

২৩.
সুখ্যাতি অর্জনের উপায় হল তুমি কি হিসেবে আবির্ভূত হতে চাও তার উপক্রম হওয়া।

২৪.
শৈশবে লজ্জা, যৌবনে ভারসাম্য এবং বার্ধক্যে ব্যয়সংকোচন ও দুরদর্শিতার প্রয়োজন।

২৫.
অর্থ হতে সদগুণ জন্মে না বরং অর্থ ও অন্যান্য কাম্য বিষয় সদগুণ থেকেই গ্রহণ করে।

২৬.
যৌবনকালে অর্ধেক খাও, আর অর্ধেক সঞ্চয় কর। যৌবনের সঞ্চয় বৃদ্ধকালের অবলম্বন।

২৭.
যাই হোক বিয়ে কর। তোমার স্ত্রী ভাল হলে তুমি হবে সুখী, আর খারাপ হলে হবে দার্শনিক।

২৮.
আমাদের প্রার্থনা হওয়া উচিত সাধারণের ভালোর জন্য। শুধু ঈশ্বরই জানেন কিসে আমাদের ভাল।

২৯.
যার টাকা আছে তার কাছে আইন খোলা আকাশের মত, আর যার টাকা নেই তার কাছে আইন মাকড়ষার জালের মত!

৩০.
মৃত্যুর চেয়ে কঠিন হচ্ছে জীবন। কেননা দুঃখ-কষ্ট বিপদ আপদ কেবল জীবনেই ভোগ করতে হয় মৃত্যু তা থেকে মুক্তি দেয়।

৩১.
জ্ঞানের শিক্ষকের কাজ হচ্ছে কোনো ব্যক্তিকে প্রশ্ন করে তার কাছ থেকে উত্তর জেনে দেখানো যে জ্ঞানটা তার মধ্যেই ছিল।

৩২.
শক্ত মন আলোচনা করে ধারণা নিয়ে, গড়পড়তা মন আলোচনা করে ঘটনা নিয়ে, দুর্বল মন মানুষ নিয়ে আলোচনা করে।

৩৩.
নিজেকে উন্নয়নের জন্য অন্য মানুষের লেখালেখিতে কাজে লাগাও এই জন্য যে অন্য মানুষ কিসের জন্য কঠোর পরিশ্রম করে তা তুমি যাতে সহজেই বুঝতে পার।

৩৪.
নারী জগতে বিশৃঙ্খলা ও ভাঙ্গনের সর্বশ্রেষ্ঠ উৎস। সে দাফালি বৃক্ষের ন্যায় যাহা বাহ্যত খুব সুন্দর দেখায়। কিন্তু চড়ুই পাখি ইহা ভক্ষণ করিলে ইহাদের মৃত্যু অনিবার্য।

৩৫.
সত্যিকারের জ্ঞান আমাদের সবার কাছেই আসে, যখন আমরা বুঝতে পারি যে আমরা আমাদের জীবন, আমাদের নিজেদের সম্পর্কে এবং আমাদের চারপাশে যা কিছু আছে তার সম্পর্কে কত কম জানি।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!