মতুয়া সংগীত

সখীরে গোপীর ভজন

(তাল-গড়খেমটা)
সখীরে গোপীর ভজন বিষম যাজন হবে না তা,
কারা করল সাধন, চাইনে সে ধন, থাকগে ও সব পুরাণ কথা।

যে জনা মনোচুরি, করেছে সহচরী,
সে বিনে ঘুচাবে মনের ব্যাথা।
আমি বনে বনে কেঁদে বেড়াই, মনের মানুষ পাইনে কোথা।।

ছিল তার অরুণ নয়ন, চাঁদ যিনি চন্দ্র বয়ান,
সে বিনে জীবন মরণ সমান কথা।।
তারে যে ধরেছে তারি কাছে, বলছে আপন দুঃখের কথা।।

ছিল তার মলিন বসন, এক বস্ত্রা নারী যেমন,
দীনহীন কাঙ্গালের মত গলায় কাঁথা।
দিলাম তারে হেরে সব বিসর্জন, সাধন ভজন কুলশিলতা।।

যেমন চাতক চাতকী, নবঘন জলের ভুকি,
অন্য জল দেখলে সে কি নোয়ায় মাথা।
যেমন সতীর গতি প্রাণ পতি, বিনে মরে পতিব্রতা।।

সে মানুষ কোন মানুষে, স্বরূপে আছে মিশে,
তারক তার পায় না দিশে, সে রূপ কোথা।
মহানন্দ বেড়ায় সেই রূপ আশায়, স্বরূপ শক্তি হৃদয় গাঁথা।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!