রাধারমণ দত্ত

সজনি প্ৰাণবন্ধুরে কইও

সজনি প্ৰাণবন্ধুরে কইও বুঝাইয়া
আমি মাইলে ক্ষতি নাই কলঙ্কিনী হইয়া।
মরণকালে প্ৰাণবন্ধুরে দেখাইও আনিয়া
হাতে ধরলাম পায়ে ধরলাম প্ৰাণ দিলাম সপিয়া।
তবু তার মন পাইলাম না সদায় জ্বলে হিয়া
গোসাই রাধারমণ বলে মনেতে ভাবিয়া
এগো ক্ষুধা তৃষ্ণা না লয় মনে প্ৰাণবন্ধের লাগিয়া।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!