ভবঘুরেকথা
মহর্ষি মনোমোহন দত্ত দয়াময়

(রাগিণী সাহেনা-তাল খেমটা)

হরি বলে ডাকরে ও মন ভক্তি ভরে মধুর স্বরে।
ডাকলে হরি দিবেন দেখা, বড় দয়াল ভক্তের তরে।।

শিশু বৎস হাম্বা ক’রে, ডাকলে মা থাকলে দূরে,
ছুটে আসে অমনি ক’রে, বৎসের ডাকে দুগ্ধ ঝরে।।

তেমনি হরি ভক্তের ডাকে, রইতে নারে আর গোলকে,
ভক্ত হৃদয় প্রেমালোকে, হাসায়ে হাসেন অন্তরে।।

এক প্রাণে জগত প্রাণ, বাঁধা আছে অমনি সন্ধান,
আকুল হ’লে ভক্তেরি প্রাণ, সে তান বাজে তাঁর ভিতরে।।

তানে তানে পড়িলে টান, প্রাণেতে মিশে যায় প্রাণ,
ভক্ত হ’য়ে যায় ভগবান, জগত ভরা একরূপ ধরে।।

হ’লে আত্ম সম্প্রদান, করেন হরি আত্মদান,
দূরে যায় তার মান অভিমান, এক আত্মা কে ভেদ করে।।

সেরূপে স্বরূপ মিশে, দিবানিশি খেলায় হেসে,
আলোকে আঁধার নাশে, হৃদে ভাসে হরে হরে।।

মনোমোহন বড় বোকা, গেল না তার মনের ধোকা,
সোজা পথে হ’লে ঠেকা, একা সে যাইতে নারে।।

……………………………
আরো পড়ুন: মহর্ষি মনোমোহন ও মলয়া সঙ্গীত

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!