মহর্ষি মনোমোহন দত্ত দয়াময়

(রাগিণী আলোয়া-তাল খেমটা)

হরি বলে ডাকরে ও মন, গুরু বলে ডাক্,
দিবানিশি ভাবে বসি, চরণতলে প’গে থাক্।।

পশু পাখি তারা ডাকে, প্রহরে প্রহরে জাগে,
তুমি মন লেপ তোষকে ঘুমের ঘোরে মার জাক্।।

প্রেয়সীর সঙ্গে শুয়ে, কত ঢঙ্গে কথা ক’য়ে,
রঙ্গে দিলি রাত্ কাটায়ে, দিবসে তোর নাহি ফাক্।।

জমি জমা বসত বাটী, ছেলের বিয়ের ফন্দি আটি,
কে কোন্ খানে মারছে খুঁটী, ভেবে ঘুরবি মাটির চাক্।।

টাকা পয়সা সোনার গয়না, দেখনা কারো সঙ্গে যায় না,
যাবার কালে ছেড়া তেনা, তোড়ায় থাকে হাজার লাখ্।।

মারবে যখন দাঁত কপাটি, বাঁধবেরে তো খাটী খাটী,
লাগবে মাথা কুটাকুটী, হয়ে যাবে সকল খাক্।।

তাই বলিরে মনোমোহন, আগে কর শেষের আয়োজন,
তুচ্ছ কথার নাই প্রয়োজন, হরি হরি বলে ডাক্।।

……………………………
আরো পড়ুন: মহর্ষি মনোমোহন ও মলয়া সঙ্গীত

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!