ক্বারী আমির উদ্দিন

হুঁশ খাটাইয়া মানুষ হইয়া

হুঁশ খাটাইয়া মানুষ হইয়া তারপরে তুই ধর্ম মান।
একতার বল না থাকিলে কিসে হইলে মুসলমান।।

রোজা রাখি নামাজ পড়ি, থাকে না মুছল্লিগিরি
পরের দ্রব্য চুরি করি খাইলে হয় নাপাক জবান।।

হিংসা নিন্দা গীবত এ সকল লাত মান্নাত উজ্জা হুবল
দিল কাবার মূর্তি ভাঙলেনা, বেঈমানের কিসের ঈমান।।

মনেতে সংসারী ভরা উফরা ঝুফরা নামাজ পড়া
লোভের চক্ষু বালুচরা কুশ্রবণে নষ্ট কান।।

মোহাম্মদী শর্তের পরে মলমূত্র ত্যাগ কয়জনে করে
শ’তে পঞ্চাশের উপরে ভুলিয়া গেছে কোরান।।

ধর্ম নয় তকি আর দাড়ি বেপর্দাতে নর আর নারী
ভিতর বাড়ি যাইতে পারি রাত্রি কিবা দিন মাধান।।

এত করেও ইসলাম যায়না গান গাইলে কয় ইসলাম রয়না
ইসলাম গাড়ি ঘোড়া হয় না, বিমান নয় যাইত জার্মান।।

ইসলাম বলতে শান্তি বুঝায় মান্যগণ্য সমাজ সেবায়
লম্বা কুর্তা পাগড়ির শোভায় বাড়ায় পদবির গুমান।।

পরিবেশে পোকায় ধরে খাইতেছে প্রায় ঘরে ঘরে
মায়ে শুধু সত্য করে বলতে পারে কার সন্তান।।

দিন রাতে কষ্ট করিয়া মেঘে ভিজে রৌদ্রে পুড়িয়া
অগ্রায়ণে দেখবে গিয়া ঝরায় খাইছে ক্ষেতর ধান।।

মানুষ হইয়া বেহুশ থাকে মজিয়া সংসারের ফাঁকে
অনাদর্শ মানুষ দেখে শয়তানে ডাকে শয়তান।।

ইলিম আছে আমল থুইয়া, মারামারি আজ ধর্ম লইয়া
আমির উদ্দিন তাই দেখিয়া গান গাইয়া চায় পরিত্রাণ।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!