ইবাদত উপাসনা প্রার্থনা ভক্তি দয়া

এবাদত

-লুৎফর রহমান

মানব-জীবনের উদ্দেশ্য নিয়ে মানুষ এ যাবৎ যত প্রকার বিশ্লেষণ করেছে, তার মধ্যে মানুষ সর্বতোভাবে নিজেকে খোদার এবাদতে নিযুক্ত করবে, ইহাই মানব-জীবনের মূল উদ্দেশ্য। খোদা বলেছেন, “নিশ্চয়, আমি জ্বীন ও মানবকে কেবলমাত্র আমার এবাতের জন্য সৃষ্টি করিয়াছি।”

মানুষ খোদার এই এবাদতের অর্থ বুঝতে অনেক সময় ভুল করেছে, যতদিন কোনো মানব খোদার এই এবাদতের অর্থ ঠিকভাবে হৃদয়ঙ্গম করতেন না পারে, ততদিন তার জীবনের উদ্দেশ্য পূর্ণতায় পরিণত হবে না। এবাদতের অর্থ ঠিক বুঝতে না পেরে কেহ-বা ধর্মের কতিপয় বিধির ব্যবস্থাকে মৌখিক স্বীকার করে নেওয়াকে এবাদতের সারমর্ম মনে করেছে।

করে এবং যখন সাধারণ অজ্ঞ লোকেরা তাহাদিগকে সম্বোধন করে, তখন তাহারা বলে- শান্তি এবং তাহারা স্বীয় প্রতিপালকের উদ্দেশ্যে সেজদায়ও দাঁড়ান অবস্থায় অতিবাহিত করে এবং তাহারাই বলে, হে আমাদের প্রতিপালক, আমাদের হইতে দোজখের শাস্তি নিবারণ কর। নিশ্চয় উহার শাস্তি অনিবার্য।

কোরান শরীফে এবাদতের বিশদ ব্যাখ্যা না থাকলেও যে বর্ণনা দেওয়া আছে তাতেই এবাদতের অর্থ স্পষ্ট হয়ে পড়েছে। কোরানের এই আলোকের সাহায্যে মানুষকে এর প্রকৃত অর্থ বুঝতে চেষ্টা করতে হবে, এবং সেইভাবে জীবনের উদ্দেশ্যকে সফল করার জন্য মৃত্যু পর্যন্ত আপ্রাণ চেষ্টা করতে হবে, তা নাহলে এ সুন্দর মানব-জীবন বিফলে যাবে।

এ জীবন-যৌবন একবার গেলে আর ফিরে আসবে না। যে দিন বিতাড়িত শয়তান খোদাকে বলেছিল, “নিশ্চয় তুমি খুব কম লোকই দেখতে পাবে, তোমার প্রশংসাকারী, যেহেতু তাদের বেশিরভাগকেই আমি পথভ্রষ্ট করতে থাকবো।”

শয়তানের কথায় উত্তরে খোদা জোর দিয়েই বলেছিলেন, “আমার আবেদের উপর তোমার কোনোই আধিপত্য চলবে না।” (সুরা হিজর, আঃ ৪২)। আরবিতে এবাদতকারীকেই আবেদ (সেবক) বলা হয়। তাই এর দ্বারা এই প্রমাণিত হচ্ছে যে, খোদার এবাদতই মানব জীবনের প্রকৃত পথ।

যে পথের উপর দণ্ডায়মান থাকলে শয়তান ভয়ে কম্পিত হবে, হতাশায় দূরে সরে যাবে। আবার অন্য স্থানে খোদা তার আবেদের সম্বন্ধে বলেছেন, “এবং তাহারই সেই রহমানের আবেদ (সেবকবৃন্দ) যাহারা পৃথিবীর উপর বিনীতভাবে চলাফেরা।

করে এবং যখন সাধারণ অজ্ঞ লোকেরা তাহাদিগকে সম্বোধন করে, তখন তাহারা বলে- শান্তি এবং তাহারা স্বীয় প্রতিপালকের উদ্দেশ্যে সেজদায়ও দাঁড়ান অবস্থায় অতিবাহিত করে এবং তাহারাই বলে, হে আমাদের প্রতিপালক, আমাদের হইতে দোজখের শাস্তি নিবারণ কর। নিশ্চয় উহার শাস্তি অনিবার্য।

তাই বলে শুধু লেবাস, আবৃত্তি তসবিহ ও সামাজিক অনুন কোনো কাজ হবে না। মানব জীবনের উদ্দেশ্য খোদার দেওয়া জীবন ব্যবস্থা (দীন)-কে পূর্ণভাবে পালন। করে খোদার প্রকৃত আবেদ হওয়া- শয়তানের গোলাম হওয়া নহে।

নিশ্চয় উহা নিকৃষ্টতর বিশ্রামাগার ও বাসস্থান এবং যখন তাহারা ব্যয় করে তখন অপব্যয় অথবা কার্পণ্য করে না এবং উহার অন্তর্গত মধ্যপথ অবলম্বন করে। তাহারা আল্লাহর সহিত অন্য উপাস্য গ্রহণ করে না, ন্যায়সঙ্গতভাবে ব্যতীত এইরূপ করে, সে পাপের প্রতিফল পাবে।

উত্থান দিবসে তাহার জন্য শাস্তি দ্বিগুণ হইবে এবং তম্মধ্যে সে ঘৃণিত অবস্থায় পড়িয়া থাকিবে কিন্তু যে অনুতাপ করে ও বিশ্বাস স্থাপন করে ও সৎকার্য করে, তবে আল্লাহ্ উহাদের অকল্যাণ কল্যাণে পরিবর্তন করিয়ে দেন। আল্লাহ ক্ষমাশীল, করুণাময়, যে অনুতাপ করে ও সৎকার্য করে, তবে নিশ্চয় সে আল্লাহর দিকে প্রত্যাবতিত হয়।

এবং যাহারা মিথ্যা বহন করে না এবং যখন অসত্যের নিকট দিয়া অতিক্রম করে তখন ভাবেই অতিক্রম করিয়া থাকে।

“যখন তাহাদিগকে তাহাদের নির্দেশনাবলী হৃদয়সঙ্গ করান হয়, তখন উহারা বধির ও অন্ধভাবে তাহাকে গ্রহণ করে না।” (সূরা ফোরকান, আঃ ৬৩-৭৩)।

কোরান মজিদের উপরোক্ত বর্ণনার দ্বারা শুধু তসবীহ ও সেজদার মধ্যে আবেদের এবাদতকে সীমাবদ্ধ করা হয় না। বরং বিশেষভাবে ৭২ নম্বর আয়াতের দ্বারা স্পষ্ট প্রতিপন্ন হচ্ছে যে, মানুষের মুখের দ্বারা যে কথাই উচ্চারণ হউক না কেন, তার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের দ্বারা

যে কাজই সম্পন্ন হউক না কেন, এবং তার মস্তিষ্কের দ্বারা সে যাহাই চিন্তা করুক না কেন, তাতে অন্যায়ের লেশ থাকবে না, এমনকি তাতে অন্যায়ের গন্ধও থাকবে না। যদি সে খোদার প্রকৃত আবেদ বলে নিজেকে পরিচয় দিতে চায়- যদি সে তা মানব-জীবনকে ধন্য করতে চায়।

তাই বলে শুধু লেবাস, আবৃত্তি তসবিহ ও সামাজিক অনুন কোনো কাজ হবে না। মানব জীবনের উদ্দেশ্য খোদার দেওয়া জীবন ব্যবস্থা (দীন)-কে পূর্ণভাবে পালন। করে খোদার প্রকৃত আবেদ হওয়া- শয়তানের গোলাম হওয়া নহে।

আর এই জন্যেই খোদা আবার বলেছেন, (বল, আমরা গ্রহণ করিয়াছি। খোদার রং এবং রং-এ আল্লাহর চেয়ে ভালো কে আছে। এবং খোদার এবাদতকারী।

(সমাপ্ত)

<<সেবা  ।। মহৎ জীবন : পর্ব এক>>

………………..
মহৎ জীবন -লুৎফর রহমান।

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

……………………….
আরও পড়ুন-
মানব-চিত্তের তৃপ্তি
আল্লাহ্
শয়তান
দৈনন্দিন জীবন
সংস্কার মানুষের অন্তরে
জীবনের মহত্ত্ব
স্বভাব-গঠন
জীবন সাধনা
বিবেকের বাণী
মিথ্যাচার
পরিবার
প্রেম
সেবা
এবাদত

………………….
আরও পড়ুন-
মহৎ জীবন : পর্ব এক
মহৎ জীবন : পর্ব দুই
মহৎ জীবন : পর্ব তিন
কাজ : পর্ব এক
কাজ : পর্ব দুই
কাজ : পর্ব তিন
কাজ : পর্ব চার
ভদ্রতা : এক
ভদ্রতা : দুই

……………………
আরও পড়ুন-
মহামানুষ … মহামানুষ কোথায়
মহিমান্বিত জীবন
মহামানুষ
যুদ্ধ
স্বাধীন গ্রাম্যজীবন
আত্মীয়-বান্ধব
সত্য প্রচার
নিষ্পাপ জীবন
উপাসনা
নমস্কার
তপস্যা
তীর্থ-মঙ্গল
আত্মার স্বাধীনতার মূল্যবোধ
মনুষ্য পূজা
মন্দতাকে ঘৃণা

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!