বাউল গান সাধু ফকির বয়াতী

ব্রজের শ্যামসুন্দরকে ধরবি যদি

ব্রজের শ্যামসুন্দরকে ধরবি যদি স্বরূপ সাধন করো
নইলে হবার নয়, ও সে পাবার নয়,
তিন জন্ম যদি মাথা খোঁড়ো।।

গ্রন্থকারে লিখে গেছে গ্রন্থমধ্যে,
স্থপিত আছে ভক্তি-সিন্ধু-মাঝে দেখ যে,
বুঝে-সুজে গ্রন্থের ডোর খুলবি,
নইলে ছারেখারে যাবি,
প্রাকৃত জীবে না পারবি,
ফেরেফারে বোঝো মূঢ়।।

বিদ্যুতের ন্যায় কলা এসে,
শীঘ্র পলায় পূর্বদেশে,
খুব হুঁশারে থাকবি রে বসে।
দৃষ্টি ছাড়া হলে পরে,
আবার আসবি ভবে ঘুরে;
সাধু-গুরুর সরল বাক্য
হৃদয়-মন্দিরে গাড়ো।।

মানুষ চলে উল্টো কলে,
অনুরাগী নেয় গো তুলে,
নেহার দিয়ে পারে যায় চলে;
গুরু-শিষ্যে একই হ’লে
ভাব-স্বভাবে তবেই মিলে।
গোঁসাই হরি বলে, শোন পদ্মলোচন,
এবার তোর কপালে বিষম ফের।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- কেঁদুলীর মেলায় বাঁকুড়া, মেদিনীপুর, মানভূম, মূর্শিদাবাদ, বীরভূম, বর্ধমান প্রভৃতি জেলা হইতে সমাগত বাউলদের নিকট হইতে বিশেষভাব গৃহীত বাউল গান।

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!