ভবঘুরে কথা

ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : পঞ্চদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৬ই এপ্রিল অবতার বেদবিধির পার – বৈধীভক্তি ও ভক্তি উন্মাদ গিরিশ পুনর্বার ঘরে আসিয়া ঠাকুরের সম্মুখে বসিয়াছেন ও পান খাইতেছেন। শ্রীরামকৃষ্ণ (গিরিশের প্রতি) – রাখাল-টাখাল এখন বুঝেছে কোন্‌টা ভাল, কোন্‌টা মন্দ; কোন্‌টা সত্য, কোন্‌টা মিথ্যা। ওরা যে সংসারে গিয়ে থাকে, সে জেনেশুনে। পরিবার আছে, ছেলেও হয়েছে – কিন্তু বুঝেছে যে সব মিথ্যা। অনিত্য। রাখাল-টাখাল […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : চতুর্দশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৬ই এপ্রিল ঠাকুর গিরিশ প্রভৃতি ভক্তসঙ্গে – ভক্তের প্রতি ঠাকুরের স্নেহ [গিরিশ, লাটু, মাস্টার, বাবুরাম, নিরঞ্জন, রাখাল ] গিরিশ, লাটু, মাস্টার উপরে গিয়া দেখেন, ঠাকুর শয্যায় বসিয়া আছেন। শশী ও আরও দু-একটি ভক্ত সেবার্থ ওই ঘরে ছিলেন, ক্রমে বাবুরাম, নিরঞ্জন, রাখাল, ইঁহারাও আসিলেন। ঘরটি বড়। ঠাকুরের শয্যার নিকট ঔষাধি ও নিতান্ত প্রয়োজনীয় জিনিসাদি রহিয়াছে। […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : ত্রয়োদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৬ই এপ্রিল শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুর উদ্যানে – গিরিশ ও মাস্টার কাশীপুর বাগানের পূর্বধারে পুষ্করিণীর ঘাট। চাঁদ উঠিয়াছে। উদ্যানপথ ও উদ্যানের বৃক্ষগুলি চন্দ্রকিরণে স্নাত হইয়াছে। পুষ্করিণীর পাশ্চিমদিকে দ্বিতল গৃহ। উপরের ঘরে আলো জ্বলিতেছে, পুষ্করিণীর ঘাট হইতে সেই আলো খড়খড়ির মধ্য দিয়া আসিতেছে, তাহা দেখা যাইতেছে। কক্ষমধ্যে ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ শয্যার উপর বসিয়া আছেন। একটি-দুটি ভক্ত নিঃশব্দে কাছে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : দ্বাদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৩ই এপ্রিল ঈশ্বরকোটির কি কর্মফল, প্রারব্ধ আছে? যোগবাশিষ্ঠ পরদিন মঙ্গলবার, রামনবমী; ১লা বৈশাখ, ১৩ই এপ্রিল, ১৮৮৬ খ্রীষ্টাব্দ। প্রাতঃকাল, – ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ উপরের ঘরে শয্যায় বসিয়া আছেন। বেলা ৮টা-৯টা হইবে। মণি রাত্রে ছিলেন, প্রাতে গঙ্গা স্নান করিয়া আসিয়া ঠাকুরকে প্রণাম করিতেছেন। রাম (দত্ত) সকালে আসিয়াছেন ও প্রণাম করিয়া উপবেশন করিলেন। রাম ফুলের মালা আনিয়াছেন ও […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : একাদশ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১২ই এপ্রিল কাশীপুর বাগানে ভক্তসঙ্গে শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুরের বাগানে সেই উপরের ঘরে শয্যার উপর বসিয়া আছেন। ঘরে শশী ও মণি। ঠাকুর মণিকে ইশারা করিতেছেন – পাখা করিতে। তিনি পাখা করিতেছেন। বৈকাল বেলা ৫টা-৬টা। সোমবার চড়কসংক্রান্তি, বাসন্তী মহাষ্টমী পূজা। চৈত্র শুক্লাষ্টমী, ৩১শে চৈত্র, ১২ই এপ্রিল, ১৮৮৬। পাড়াতেই চড়ক হইতেছে। ঠাকুর একজন ভক্তকে চড়কের কিছু কিছু জিনিস […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : দশম পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ৯ই এপ্রিল ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুরের বাগানে নরেন্দ্রাদি ভক্তসঙ্গে বুদ্ধদেব ও ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ শ্রীরামকৃষ্ণ ভক্তসঙ্গে কাশীপুরের বাগানে আছেন। আজ শুক্রবার বেলা ৫টা, চৈত্র শুক্লা পঞ্চমী। ৯ই এপ্রিল, ১৮৮৬। নরেন্দ্র, কালী, নিরঞ্জন, মাস্টার নিচে বসিয়া কথা কহিতেছেন। নিরঞ্জন (মাস্টারের প্রতি) – বিদ্যাসাগরের নূতন একটা স্কুল নাকি হবে? নরেনকে এর একটা কর্ম যোগাড় করে – নরেন্দ্র – […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : নবম পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৫ই মার্চ গুহ্যকথা – ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ ও তাঁহার সাঙ্গোপাঙ্গ ভক্তেরা নিস্তব্ধ হইয়া বসিয়া আছেন। ঠাকুর ভক্তদের সস্নেহে দেখিতেছেন, নিজের হৃদয়ে হাত রাখিলেন – কি বলিবেন – শ্রীরামকৃষ্ণ (নরেন্দ্রাদিকে) – এর ভিতর দুটি আছেন। একটি তিনি। ভক্তেরা অপেক্ষা করিতেছেন আবার কি বলেন। শ্রীরামকৃষ্ণ – একটি তিনি – আর একটি ভক্ত হয়ে আছে। তারই হাত ভেঙে […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : অষ্টম পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৫ই মার্চ সমাধিমন্দিরে পরদিন সকাল বেলা। আজ সোমবার, ৩রা চৈত্র; ১৫ই মার্চ, (১৮৮৬)। বেলা ৭টা-৮টা হইবে। ঠাকুর একটু সামলাইয়াছেন ও ভক্তদের সহিত আস্তে আস্তে, কখনও ইশারা করিয়া কথা কহিতেছেন। কাছে নরেন্দ্র, রাখাল, মাস্টার, লাটু, সিঁথির গোপাল প্রভৃতি। ভক্তদের মুখে কথা নাই, ঠাকুরের পূর্বরাত্রির দেহের অবস্থা স্মরণ করিয়া তাঁহারা বিষাদগম্ভীর মুখে চুপ করিয়া বসিয়া আছেন। […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : সপ্তম পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১৪ই মার্চ ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুরের বাগানে সাঙ্গোপাঙ্গসঙ্গে ভক্তের জন্য শ্রীরামকৃষ্ণের দেহধারণ ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুরের বাগানে রহিয়াছেন। সন্ধ্যা হইয়া গিয়াছে। ঠাকুর অসুস্থ। উপরের হলঘরে উত্তরাস্য হইয়া বসিয়া আছেন। নরেন্দ্র ও রাখাল দুইজনে পদসেবা করিতেছেন, মণি কাছে বসিয়া আছেন। ঠাকুর ইঙ্গিত করিয়া তাহাকে পদসেবা করিতে বলিলেন। মণি পদসেবা করিতেছেন। আজ রবিবার, ১৪ই মার্চ, ১৮৮৬; ২রা চৈত্র, […]

বিস্তারিত পড়ুন
রামকৃষ্ণ পরমহংস দেব ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায়

রামকৃষ্ণ কথামৃত : ঊনপঞ্চাশৎ অধ্যায় : ষষ্ঠ পরিচ্ছেদ

১৮৮৬, ১১ই মার্চ কাশীপুর উদ্যানে শ্রীযুক্ত নরেন্দ্র প্রভৃতি ভক্তসঙ্গে নরেন্দ্রকে জ্ঞানযোগ ও ভক্তিযোগের সমন্বয় উপদেশ ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ কাশীপুরের বাগানে হলঘরে ভক্তসঙ্গে অবস্থান করিতেছেন। রাত্রি প্রায় আটটা। ঘরে নরেন্দ্র, শশী, মাস্টার, বুড়োগোপাল শরৎ। আজ বৃসস্পতিবার – ২৮শে ফাল্গুন, ১২৯২ সাল; ফাল্গুন মাসের শুক্লা ষষ্ঠী তিথি; ১১ই মার্চ, ১৮৮৬ খ্রীষ্টাব্দ। ঠাকুর অসুস্থ – একটু শুইয়া আছেন। ভক্তেরা […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!