ভবঘুরে কথা

গুরুচাঁদ চরিত

মতুয়া সংগীত গান

বনে থাকে মুনি ঋষি

বনে থাকে মুনি ঋষি খাদ্য কোথা পায়? বনে থাকে মুনি ঋষি খাদ্য কোথা পায়? ঘৃতকান্দিবাসী কুঞ্জ ভাবে সর্বদায়।। একদিন মহাপ্রভু গুরুচাঁদ যিনি। কুঞ্জকে ডাকিয়া কথা বলিলেন তিনি।। “বনে থাকে মুনি ঋষি তারা কিবা খায়? আমরা পরীক্ষা তাঁর করিব নিশ্চয়।। অদ্য রাত্রে ওড়াকান্দি তুমি কর দেরী। কল্য প্রাতে দেখি কোন কার্য করে হরি।।” বিস্মিত হইল কুঞ্জ […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

তের শ’ ঊনচল্লিশ

শ্রীশ্রীহরি-গুরুচাঁদ মিশন তের শ’ ঊনচল্লিশ সাল গণনায়। দুর্গাপূজা কালে ভক্ত ওড়াকান্দি যায়।। শত শত ভক্ত সেথা করে আগমন। সবারে ডাকিয়া প্রভু বলিলা বচন।। “শুন ভক্তগণ! যাহা আসিয়াছে মনে। ‘মিশন’ গড়িব এক প্রচার কারণে।। মতুয়া ধর্মের নীতি করিতে প্রচার। ‘মিশন’ গড়িব মোরা অতি চমৎকার।। দেশে দেশে মিশনের বহু শাখা র’বে। আমার বাবার নাম প্রচার করিবে।।” প্রভুর […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

বিলাত হইতে ফিরি

প্রমথ রঞ্জনের শুভ-পরিণয় বিলাত হইতে ফিরি প্রমথ রঞ্জন। বিবাহের লাগি কন্যা করে দরশন।। কায়স্থ ব্রাহ্মণ আদি উচ্চ বর্ণ হ’তে। প্রমথ রঞ্জনে চায় বহু কন্যা দিতে।। তাহাতে না সুখী হ’ল প্রমথের মন। স্বজাতির মধ্যে কন্যা করে অন্বেষণ।। বরিশাল জিলা মধ্যে জব্দ কাঠি গ্রাম। আনন্দ সাধক নামে অতি গুণধাম।। অশ্বিনী সাধক নামে তার পুত্র যিনি। তাঁহার তৃতীয়া […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

ঘোর কুজ্ঝাটিকা জাল

শ্রীশ্রীসত্যভামা দেবীর মহাপ্রস্থান “তোরা দুঃখ জানিস কিরে, জানকীরে কত না কান্দায়ে ছিলে। দুঃখ না সইতে পেরে, মাটি ফুঁড়ে, মাটির সাথে মাটি হলে।।”-কবি রসরাজ তারকচন্দ্র ঘোর কুজ্ঝাটিকা জাল ধরারে ঘিরিল। অকারণ সব মন উচাটন হ’ল।। তেরশ’ ঊনচল্লিশ সাল দেখা দিল। কুজ্ঝাটিকা ঘেরা মাস মাঘ যবে এল।। ক্ষণে ক্ষণে মতুয়ার কেন্দে ওঠে মন। কি যে হবে কেহ […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

উনিশ শ’ তিরিশ অব্দে

ব্যারিস্টার রূপে প্রমথ রঞ্জনের কার্যাবলী উনিশ শ’ তিরিশ অব্দে আসিলেন দেশে। কলিকাতা বসিলেন ব্যারিস্টার বেশে।। মধুর সুন্দর মূর্তি তেজস্বীতা ভরা। জ্ঞানে গুণে আলাপনে সকলের সেরা।। প্রধানমন্ত্রীর ভাগে বঙ্গীয় সভায়। তপশীলী জাতি মাত্র “দশাসন” পায়।। বড়ই অন্যায্য তাহা সকলেই কয়। বঙ্গদেশে তার জন্য আন্দোলন হয়।। “অনুন্নত জাতি সঙ্গ” বলি পরিচয়। প্রমথ রঞ্জন এক সমিতি গড়ায়।। রায় […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

ধরিয়া মানব রূপ

অসার সংসার ধরিয়া মানব রূপ, নরাকারে বিশ্বভূপ, নরাকারে করে নরখেলা। নর-চক্রে ইহা করে, ঐশ চক্রে রাখে ধরে, ধরা পরে করে যত লীলা।। আপনি গৃহস্থ সাজি, গৃহ ধর্মে হ’য়ে রাজী, আদর্শ দেখা’ল জনে জনে। ক্রমে ক্রমে দিন যায়, জীবনের বেলা হায়! যেতে চায় আঁধারের পানে।। মনে মনে সমাচার, পেল প্রভু মহেশ্বর, ত্রিদিবে কাঁদিছে দেবগণ। ছাড়িয়া ধরার […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

অসহযোগের পক্ষে

অসহযোগ আন্দোলনের পরিণতি (গোল টেবিল বৈঠক) অসহযোগের পক্ষে কংগ্রেসের যুদ্ধ। সৈনিক জুটিল তার নরনারী শুদ্ধ।। মহাত্মা গান্ধীর বাণী শুন দিয়া মন। তিনি বলে “হতে পারে স্বরাজ অর্জন।। আমি যাহা বলি তাহা সবে যদি শোনে। স্বরাজ আনিতে আমি পারি একদিনে।।” ক্রমে ক্রমে আন্দোলন বাড়িয়া চলিল। রাজার আইনে বহু জেলে ধরে নিল।। “আইন অমান্য” নীতি কংগ্রেস ধরিল। […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

প্রভুর মধ্যম পুত্র

মহাত্মা সুধন্যকুমারের জীবন কথা প্রভুর মধ্যম পুত্র সুধন্য ঠাকুর। হরিভক্ত সুবিনয়ী মহিমা প্রচুর।। বার শত অষ্টাত্তর সালে জন্ম নিল। শ্রীহরির স্পর্শ পেয়ে ভক্তিমান হ’ল।। জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা সম পিতা মানে মহাশয়। “বিনয়ের অবতার” সবে তারে কয়।। বৃদ্ধ কি বালক কিংবা যুবক যুবতী। দেখা হ’লে অগ্রভাগে করিতেন নতি।। পূর্ব হ’তে নমস্কার করে সর্বজনে। সুমিষ্ট আলাপ করে সকলের […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

পারশুলাবাসী সাধু

শ্রীশ্রী গুরুচাঁদের ১৩৩৪ সালের ভ্রমণ পারশুলাবাসী সাধু শ্রীহরি মোহন। শ্রীহরিবরের শিস্য জানি সেই জন।। ভারীদেহ ভারীদেল বড় ঘর বাড়ী। ঠাকুর বলিয়া ক্রমে সব দিল ছাড়ি।। গুরুচাঁদ পদে নিষ্ঠা ছিল অতিশয়। তার ভক্তিগুণে প্রভু তার বাড়ী যায়।। তেরশ’ চৌত্রিশ সালে সময় হইল। হরি মোহনের বাড়ী মহাপ্রভু গেল।। এবে শুন সঙ্গে গেল কোন কোন জন। ক্রমে ক্রমে […]

বিস্তারিত পড়ুন
মতুয়া সংগীত গান

লক্ষ্মীখালী ছাড়ি

বিভিন্ন ভক্তালয়ে ভ্রমণ লক্ষ্মীখালী ছাড়ি পরে, তরণী চলিল ধীরে, ভোলা নদী ধরি তরী ধায়। মাদুর পাল্টার মাঝ, উপাধিতে কবিরাজ, সেই গৃহে মহাপ্রভু যায়।। শ্রীমধুসূদন নামে, কর্তা যিনি সেই ধামে, করজোড়ে প্রভুকে বন্দিল। শ্যাম সখী দুই ভাই, মনে কোন দ্বিধা নাই, বিলাতের চাঁদা আনি দিল।। তথা হ’তে তরী চলে, কিছুকাল গত হ’লে, দিগরাজবাসী নিবারণ। উপাধিতে হালদার, […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!