ভবঘুরে কথা

দেহতত্ত্ব

চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

দেহতত্ত্ব বর্ণন

ভূ, র্ভুব, স্বং এই ত্রিলোকমধ্যে যত প্রকার জীব, নদ-নদী, সমুদ্র, পর্ব্বত, ঋষি, দেবতা, গ্রহ, নক্ষত্রাদি আছে, তৎসমস্তই আমাদের এই দেহমধ্যে, সূক্ষ্মভাবে বিরাজমান আছে। পৃথিবী, জল, অগ্নি, আকাশ ও বায়ু এই পঞ্চ মহাভূত দেহে অধিষ্ঠিত আছেন। এই পঞ্চভূত হইতে শরীর নির্ম্মাণ-সমর্থ শত্রু, শোণিত, মজ্জা, মাংস, অস্থি, মেদ ও ত্বক এই সপ্তধাতু এবং ক্ষুধা তৃষ্ণাদি শরীর ধর্ম্ম […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

ষটচক্রে ভেদ

প্রণম্য পরমাত্মনং ষটচক্রক্রানং নিরুপণম্। পূর্ণানন্দোদিতং রম্যং বিদিতো ক্রীয়তে ময়া।। এই যে মানব দেহ কর নিরীক্ষণ। চতুর্ব্বিংশ তত্ত্বে ইহা হয়েছে গঠন।। পঞ্চভূত ষড়রিপু একত্র করিয়া। দশেন্দ্রিয় মধ্যে ইহা লইবে ধরিয়া।। মহাভূত অহঙ্কার সহকারে মন। এইত চব্বিশ তত্ত্ব দেহ নিরূপণ।। কোন কারিকর করে এসব কারিকরী। তার মধ্যে ষড়পদ্ম রাখিয়াছে সারি।। সহস্রার পদ্ম হয় সহস্রের দল। যধ্যে আত্মারামেশ্বর […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

ষট্চক্র তত্ত্ব

সর্ব্বমোট পঞ্চাশ অক্ষর দ্বারা চক্রেতে পদ্ম স্থিতি হইয়াছে আজ্ঞা চক্র- নাসামূলের ঊর্দ্ধে ভ্রূদ্বয়ের হক্ষ এই অক্ষরদ্বয় আজ্ঞাচক্রে দ্বিতল গঠিত পদ্মের স্থিতি। বিশুদ্ধ চক্র- কণ্ঠমূলে অ আ ই ঈ উ ঊ ঋ ৯ এ ঐ ও ঔ ং : এই ষোড়শ অক্ষরে বিশুদ্ধচক্রে ষোড়শ দলে গঠিত পদ্মের স্থিতি। অনাহত চক্র- বৃক্ষ:স্থলে ক খ গ ঘ ঙ […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

হংস মন্ত্র সোহং অর্থ

সহং জাত পরং তত্ত্ব হংসাদি পরম লভাতে। নাহং শ্বাসং পরং তত্ত্ব মনহী পরম জবীকং।। হ’স’ কায় শাখা দুই হয় রবি শশী। মধ্যবিন্দু পরম ব্রহ্ম তনুতে প্রকাশি।। হ করে নির্গম, স করে প্রবেশন। সদা কাল হইতেছে গমনাগমণ।। হংস শব্দে সোহং অর্থ মনেতে জানিয়া। সোহং শব্দে সেই আম দেখহ ভাবিয়া।। হ’স’ দুই পাখা করিয়া ছেদন। বিন্দুরূপে পরমাত্মা […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

সপ্তস্বর্গ সপ্তপাতাল ও দেহের মঞ্জরীতত্ত্ব

সপ্তস্বর্গ, সপ্তপাতাল দেহে নিবসয়। সেই গূঢ় তত্ত্ব পুন: করিব নির্ণয়।। স্বলোক মস্তক হয় গলা অন্তরীক্ষ। স্কন্ধদেশ পৃথিবী সে মহালোক বক্ষ।। জনলোক পৃষ্ঠপরে রয় বিরাজিত। তপ:লোক কটিদেশে করি যে বিবৃত।। ব্রহ্মতালু পরে সত্যলোক অধিষ্ঠান। কহিলাম এই সপ্তস্বর্গের বিধানে।। সপ্ত-পাতাল তত্ত্ব কহি পুন: তাই। সবিশেষ সেই তত্ত্ব শুনহ সাই।। কটি অধোদেশে হয় তলাতল স্থান। গুহ্যবেশে বিতল সেই […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

দেহের ধাম ও আঠার মোকাম

মন দিয়া শুন-ধাম-তত্ত্বের বিচার। দেহ মধ্যে বৃন্দাবন সর্ব্বসিদ্ধি সার।। বাহ্যেত চুরাশী ক্রোশ বৃন্দাবন হয়। দেহ মধ্যে সেই সব করিব নির্ণয়।। ব্রাহ্মাণ্ডেতে যাহা আছে ভাণ্ডে তাহা পাই। শ্রীগুরুর কৃপা হলে জানিবে সবাই।। অতএব কহি শুন ধাম বিবরণ। নিত্যানন্দময় স্থান ধাম বৃন্দাবন।। বক্ষেতে মথুরা ধাম করিয়াছে স্থিতি।। মুখদ্বারে শ্রীরাধিকা করেছে বসতি।। ব্রহ্মরন্ধ্রে মস্তকেতে শ্রীগোলক ধাম। কর্ণদ্বয় হয় […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু দেহতত্ত্ব

দেহে দেবেতার অবস্থান নির্ণয়

দেহ সকলের সার দেখহ বিচারি। যেখানে যে দেবমূর্ত্তি কহিব নির্দ্ধারি।। আধ্যাত্মিক বৈষ্ণবের কার্য্য এ সকল। সাধিলে হইবে সিদ্ধি নাশি অমঙ্গল।। ললাটে কেশব যথা করেন বসতি। বামেতে লক্ষ্মীদেবী দক্ষিণে সরস্বতী।। শুদ্ধ চিন্তা, শুদ্ধ কর্ম ভক্তি অপরূপ। কণ্ঠযোগে শ্রীগোবিন্দ ওঁকার স্বরূপ। চতুর্ভুজ মাধবেন্দ্র বক্ষ:স্থলে স্থিতি। শঙ্খ চক্র গদা পদ্ম বামেতে প্রকৃতি।। নাভিমূলে নারায়ণ করিবেক ধ্যান। তবেই ভাবুকগণ […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!