ভবঘুরে কথা

ভ্রমজ্ঞান

চৈতন্য মহাপ্রভু পরিচিতি

মানব জন্ম ধন্য কিসে?

উত্তম জন্মসংপ্রাপ্ত আত্মানং যোনি তারয়েৎ। স নরশ্চাত্মঘাতীস্যাৎ পুনব্যাসতি যাতনাম।। (ইতি কর্ম্মবিপাকে) উত্তম কূলেতে জন্মি কিবা ফলোদয়। ব্রহ্মজ্ঞান বিহনে শূদ্র সম হয়।। মনুষ্য জন্ম হয় চারি লক্ষবার। ইহা জানি দু:খ চিন্তা নাহিক কাহার। মিছা সেই আশা দেখ এই কলিকালে। চারি লক্ষবার জন্ম হ’ত পূর্ব্বকালে।। জপ তপ জাতি ধর্ম্ম আদি হত রক্ষা। কিন্তু কলিকালে হয় এসব উপেক্ষা।। […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু পরিচিতি

চুরাশী লক্ষ যৌনী ভ্রমণ

স্থাবর ত্রিংশল্পক্ষশ্চ জলর্যো্নবলক্ষক:। কৃমিয়োদশলক্ষশ্চ রুদ্রলক্ষশ্চ পক্ষিণৌ।। পাশোবো বিংশলক্ষশ্চ চতুর্লক্ষন্ত মানবা। এতেষুভ্রমণং ক্বত্বা ভ্রাদ্ধিজত্বমুপজায়তে। মানুষ্যদুর্ল্লভং জন্ম যদিস্যাৎ কৃষ্ণসাধক:।। (তথাহি শ্রীমদ্ভাগবতে দশমস্কন্ধে প্রথম অধ্যায়ে শুকদেব প্রতি পরীক্ষিদুক্ত নিবর্ত্ত্যতস্বৈরূপ গীয়মানাদিতি শ্লোকস্য ব্যাখ্যায়াং গোস্বামীনোক্তং) পুরাণাদি শাস্ত্রে যাহা আছয়ে বর্ণন। শুন সে চুরাশী লক্ষ যোনি বিবরণ।। ত্রিশ লক্ষবার বৃক্ষ যোনিতে জনম। তাতে যত কষ্ট হয় অশেষ রকম।। রৌদ্রের উত্তাপ লাগে […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু পরিচিতি

বৃথা মান-বৃথা অহঙ্কার

অনিত্যানি শরীরাণি বিভবো নৈব শাশ্বত। নিত্যঙ সন্নিহিতো মৃত্যু: কর্ত্তব্যো ধর্ম্ম সঞ্চয়:।। সত্য, ত্রেতা আর দেখ দ্বাপর যুগেতে। আয়ু নির্দ্ধারিত ছিল আছয়ে শাস্ত্রেতে।। কিন্তু কলিকালে নাহি আয়ু পরিমাণ। শিশু, ছেলে, যুবা মরে গর্ভের সন্তান।। সত্যযুগে দেহে ছিল প্রাণ মজ্জাগত। ত্রেতাযুগে প্রাণ আছিলেক অস্থিগত।। দ্বাপর যুগেতে ছিল চর্ম্মগত প্রাণ। কলিকালে অন্নগত হয় যে পরাণ।। তাই বলি ধন […]

বিস্তারিত পড়ুন
চৈতন্য মহাপ্রভু পরিচিতি

আমি কার! কে আমার!

সাধু গুরু বৈষ্ণবের চরণ বন্দিয়া। ভ্রমজ্ঞান কথা কিছু কহি বিবরিয়া।। জ্ঞান লাভ তার যত আছে জ্ঞানচয়।। আত্মজ্ঞান শ্রেষ্ঠ বলি মনিগণে কয়।। ভ্রান্ত জীব কর্ম্মবশে সংসারে আসিয়া। মরয়ে আপন দোষে তত্ত্ব না জানিয়া।। সেই হেতু নানা শাস্ত্র করিয়া মন্থন। ভ্রমজ্ঞান কথা কিছু করিব বর্ণন।। ভোজবাজী মত মিছা হয় এ সংসার। বৃথা কেঁদে বলে সবে আমার আমার।। […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!