ধ্যান

ধ্যান : পর্ব-আট : মনিপুর চক্র

-দ্বীনো দাস

মনিপুর চক্র
(soler plexus- রুহু- adernal Gland)

মনিপুর চক্র হলো বুদ্ধি ও বলের প্রতীক। এটি শরীরের সেই বাস্তবিক কেন্দ্র যেখান থেকে ভৌতিক শক্তির বিতরণ কার্য সম্পন্ন হয়। এটি নাভি থেকে মোটামুটিভাবে তিন আঙ্গুল উপরে অবস্থিত, ভয় পেলে শরীরের এই অংশ শক্ত বা দৃঢ় হয়ে যায়।

মনিপুর চক্র লাল রং এর ১০টি দল বিশিষ্ট পদ্ম বলে। ঐ ১০টি দলে এক একটি করে ১০ টা নীলবর্ণ বর্ণ আছে। এইসব বর্ণে আছে সুষুপ্তি, তৃষ্ণা, ঈর্ষা, খলতা, লজ্জা, ভয়, ঘৃণা, মোহ, কুবুদ্ধি ও বিবেক এই দশটি বৃত্তি আছে। এই পদ্মের কর্ণিকা মধ্যে ত্রিকোণ আকৃতি অগ্নিমণ্ডল আছে ৷

সপ্তদল পাতালের নীচে
চতুর্দল আর কুলকুণ্ডলিনী সদাই স্থির,
তার উর্ধ্বে বিজনেতা দশমদল
কমলের উপর মনিপুরের ঘর।।

তার উর্ধ্বে দ্বাদশদলে
উনপঞ্চাশ পবনের ঘর,
পানআপান সমান উদানের
ব্যাস হতে গতি কার।।
-সাঁইজি ফকির লালন

এই চক্রের সঙ্গে পাকস্থলী, যকৃত, পিত্তাশয় এবং পাচন তন্ত্রের অঙ্গাদির সম্পর্ক রয়েছে।

এর প্রতিকূল প্রভাবে ব্যক্তির উদরাময়, সংগ্রহনী ও রক্ত সম্পর্কিত রোগে পিড়ত হয় এবং পাচনতন্ত্রের উপর প্রভাব পড়ে।

এর তত্ত্ব হল অগ্নি, কোন কোন সাধক মনিপুর চক্রকে সূর্য কেন্দ্র চক্র বলে। এই চক্রের কাজ লোভ, ক্রোধ, অপরিপক্ব ভাবনা, শক্তির প্রেরণা এবং বুদ্ধিমত্তার কেন্দ্র। ইহার সাথে অগ্নাশয়ের সম্পর্ক আছে। এই মনিপুর চক্র শরীরের উষ্ণতা ও শীতলতা অর্থাৎ তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। মনিপুর চক্র শরীরের সামনে ও পিছনে দুই পাশেই স্থিত।

সামনের চক্র যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি পিছনের চক্র ও গুরুত্বপূর্ণ।

সংক্ষেপ বিবরণ-

১. নাম- মনিপুর চক্র, solar plexus, রুহু adernal Gland.
২. স্থান- নাভিমূলের উপরে।
৩. রঙ- হলুদ yellow.
৪. দলের অক্ষর- দশ পাপড়িতে – ১০টি অক্ষর।
৫. তত্ত্ব- অগ্নিতত্ত্ব রক্তরঙ ত্রিকোণাকার।
৬. সম্পর্ক- ব্রহ্ম গ্রন্থি, এডারনাল গ্রন্থি Adernal Gland .
৭. আকৃতি- নীল রঙের আলোয় আলোকিত ১০টি দলযুক্ত।
৮. ফল- শরীর, শক্তি ও বুদ্ধিমত্তার জ্ঞান এবং অজীর্ণ রোগের বিলোপ।
৯. শক্তির উৎস- আনান্দ, ঈর্ষা ও দ্বেষ।
১০. নিয়ন্ত্রণ- পেট, লিভার ও পিত্তাশয়।

এই চক্রের আরো কিছু গোপন শব্দ বা বর্ণ আছে যা কিনা আপন মুর্শিদ কেবলার কাছ হতে সিদ্ধ জ্ঞানী গুরুর কাছ থেকে- জেনে বুঝে দেখে নিয়ে করতে হয়।

(চলবে…)

………..
বি.দ্র.
আমার এই লেখা কিছু ইতিহাস থেকে নেওয়া কিছু সংগৃহীত, কিছু সৎসঙ্গ করে সাধুগুরুদের কাছ থেকে নেওয়া ও আমার মুর্শিদ কেবলা ফকির দুর্লভ সাঁইজি হতে জ্ঞান প্রাপ্ত। কিছু নিজের ছোট ছোট ভাব থেকে লেখা। লেখায় অনেক ভুল ত্রুটি থাকতে পারে তাই ভুল ত্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।। আলেক সাঁই। জয়গুরু।।

…………….
আরো পড়ুন:
ধ্যান-১
ধ্যান-২

ধ্যান-৩
ধ্যান-৪
ধ্যান-৫
ধ্যান-৬
ধ্যান-৭
ধ্যান-৮
ধ্যান-৯
ধ্যান-১০
ধ্যান-১১
ধ্যান-১২

…………….
আরো পড়ুন:
অবশ জ্ঞান চৈতন্য বা লোকাল অ্যানেস্থেসিয়া
ঈশ্বর প্রেমিক ও ধৈর্যশীল ভিখারী
সুখ দুঃখের ভব সংসার
কর্ম, কর্মফল তার ভোগ ও মায়া
প্রলয়-পূনঃউত্থান-দ্বীনের বিচার

ভক্তি-সংসার-কর্ম

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!