স্বামী নিত্যানন্দ গিরি

: বিশ্বাস মহাসম্পদ :

প্রেম ও ভক্তির অভাব, খারাপ হয়েছে স্বভাব
হৃদয়ে সঞ্চার হয় যেন ভাব,
থাকলে পূর্ণ বিশ্বাস দিচ্ছেন তিনি আশ্বাস
যতক্ষণ আছে এ দেহে নিঃশ্বাস।।১

যার নিজের উপরে নেই বিশ্বাস।
সে অপরকে কি করে করবে বিশ্বাস? ২

বিশ্বাস করা কেবল কারো মুখের কথা নয়।
ব্যবহার করার পর বিশ্বাস অবিশ্বাস হয়।।৩

কথা দিয়ে যারা রাখে না কথা, তারা ধোকেবাজ।
বেশিরভাগ লোক বিশ্বাস নষ্ট করে সমাজে আজ।। ৪

সাধন বিনে কভু মিলে কি কখনো রতন।
গুরুতে বিশ্বাস হলে তবেই ঘুচবে বন্ধন।।৫

ইন্দ্রিয়েরা কে কি বলে কান দিও না কখন।
থাকো আপন ভাবে আত্মায় করে সমর্পণ।। ৬

দেহখাঁচা থাকে পড়ে, প্রাণ পাখি যায় উড়ে।
তখন আর এদেহের কেহ আদর না করে।।৭

যতশীঘ্র সম্ভব ঘরের বাইরে নিয়ে যায় চলে।
সবাই মিলে নিয়ে যায় “বল হরি, হরিবোল” বলে।।৮

সারা জীবন মরলে খেটে বইতে সংসারের বোঝা।
জীবনের যে গুঢ় রহস্য তা আর হলো না বোঝা। ৯

গুরুর বাক্যে করো না অবিশ্বাস, ভুলো না রে মন।
শরণ যখন নিয়েছ, গুরুর বাক্য ভাব অনুক্ষণ।।১০

বিশ্বাস যদি থাকে গুরুর উপরজন্ম-মরণ না হবে।
স্বামী নিত্যানন্দ বলে, যমরাজ তোমায় না ছোঁবে।।১১

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!