সাধক

ইমাম গাজ্জালী পরিচিতি

ইমাম গাজ্জালী : জীবন ও দর্শন :: চার

-নূর মোহাম্মদ মিলু ফিকাহ ওয়াসীত, বাসীত, ওয়াজীয, বয়ানুল কাওলায়নিলিশ শাফীঈ তা’লীকাতুন ফি-ফুরুইল মযহাব, খোলাসাতুর রাসাইল, ইখতিসারুল, মুখতাসার, গায়াতুল গাওর, মজমুআতুল ফতাওয়া। ফিকাহ শাস্ত্রের মূলনীতি তাহসিনুল মাখাজ, সিফাউল আলীল, মুন্তাখাল ফি ইলমিল জিদল, মনখুল, মুসতাসফা, মাখায় ফিল খিলাফিয়াত, মোফাসসালুল খিলফি ফি উসুলিল কিয়াস। মানতিক মিয়ারুল ইলম, মীযানুল, আ’মল (ইউরোপে প্রাপ্তব্য) দর্শন মাকাসিদুল ফালাসিফাহ, তাহাফুতুল ফালাসিফাহ (ইউরোপে […]

বিস্তারিত পড়ুন
ইমাম গাজ্জালী পরিচিতি

ইমাম গাজ্জালী : জীবন ও দর্শন :: দুই

-নূর মোহাম্মদ মিলু মাদ্রাসা নিযামিয়ার অধ্যক্ষ পদে ইমাম গাজ্জালী কিমিয়ায়ে সা’আদাত বাগদাদে তখন তুর্কিরাজ মালেক শাহের আধিপত্য ছিল। তার প্রধানমন্ত্রী হাসান বিন আলী নিযামুল মূলক একজন অসাধারণ পণ্ডিত ও বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তি ছিলেন। তার নামানুসারেই বাগদাদের বিশ্ববিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় ‘মাদ্রাসায়ে নিযামিয়া’ এবং উহার পাঠ্যতালিকা ‘দরসে নিযামী’ নামে প্রসিদ্ধি লাভ করে। তিনি অত্যন্ত আগ্রহের সাথে ইমাম গাজ্জালীকে মাদ্রাসার […]

বিস্তারিত পড়ুন
ইমাম গাজ্জালী পরিচিতি

ইমাম গাজ্জালী : জীবন ও দর্শন :: তিন

-নূর মোহাম্মদ মিলু হজ্ব পালন ও দেশ ভ্রমণ মদীনা শরীফ থেকে তিনি মক্কা শরীফ যেয়ে তিনি হজ্ব পালন করেন। এখানেও তিনি ধীর্ঘকাল অবস্থান করেন। মক্কা মদীনায় অবস্থানকালে তিনি বিভিন্ন দেশের বহু বুজুর্গের সাথে সাক্ষাৎ ও আলাপ আলোচনা করেন। এরপর সেখান থেকে তিনি বিশ্ববিখ্যাত আলেকজান্দ্রিয়া যান। সেখানে কিছুকাল থাকার পর দেশে প্রত্যাবর্তন করেন। ফেরার পথে তিনি […]

বিস্তারিত পড়ুন
ইমাম গাজ্জালী পরিচিতি

ইমাম গাজ্জালী : জীবন ও দর্শন :: এক

-নূর মোহাম্মদ মিলু বিশ্ববরেণ্য মহামনীষী ইমাম গাজ্জালী (র) এর প্রকৃত নাম আবু হামিদ মুহম্মদ। তাঁর পিতা ও পিতামহের উভয়ের নামই মুহম্মদ। তার মর্যাদাসূচক পদবী হুজ্জাতুল ইসলাম। খোরাসানের অন্তর্গত তুস জেলার তাহেরান নগরে গাজালা নামক স্থানে হিজরি ৪৫০ সনে, মুতাবেক ১০৫৮ খৃষ্টাব্দে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ইমাম গাজ্জালীর যুগে পারস্যের সম্রাট ছিলে সলজুক বংশীয়সুলতান রুকনুদ্দিন তোগরল বেগ। […]

বিস্তারিত পড়ুন
শ্রী শ্রী রাম ঠাকুর পরিচিতি

শ্রীশ্রীঠাকুর রামচন্দ্র দেব : প্রথম খণ্ড

“মাধব, বহুত মিনতি করি তোয়। দেই তুলসী তিল দেহ সমর্পিণু দয়া জনু না ছাড়বি মোয়।।” এ কথা বিদ্যাপতির। কথা নয় কবিতা। বহুকাল আগে ভক্তকবি বিদ্যাপতি অকুণ্ঠ আত্মসমর্পণের সকরুণ সুরে প্রার্থনা করেছিলেন মাধবের কাছে। মিনতি করে বলেছিলেন, হে মাধব, যে দেহ তিল তুলসী সহযোগে সমর্পণ করেছি তোমার কাছে, সে দেহে আমার কোন দাবী নেই। আমার বলতে […]

বিস্তারিত পড়ুন
লালন বলে কুল পাবি না লালন বলে কুল পাবি না

লালন বলে কুল পাবি না : পর্ব তিন

-মূর্শেদূল কাইয়ুম মেরাজ ফকির লালন সাঁইজির পদটা শুনে কিছুটা স্থির হলেও জীবন দা’র ছুড়ে দেয়া প্রশ্নটা অগ্নি হজম করতে পারছিল না কিছুতেই। যেন গান শেষের অপেক্ষাতেই ছিল। গানটা শেষ করে জীবন দা’ চোখ খুলতেই অগ্নি বলে উঠলো- যদি বলি সত্যি সত্যি জানতে চাই তাহলে কি করবেন আপনি? ক্লাস নিতে শুরু করবেন? তা বেতন কত দিতে […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : অন্যান্য

ধারাপাত (অধ্যাত্মবিজ্ঞান) ……………………………………. ১ ১ -এ আল্লাহ্। ২ -এ রাসূল। ৩ -এ আদম। আহাদ এর দম আদম। ৪ -এ চন্দ্র। চার চন্দ্র। -সরল, গরল; আদি; রুহানী। ৫ -এ পঞ্চ আত্মা। রুহ আবাদী, রুহ যাবাদি; রুহ হায়ানী; রুহ ইনসানী; রুহের নাম রহমানী। ৬ -এ ষড়রিপু। ৭ -এ শ্বাস সমুদ্দুর। শ্বাস ছুটলেই সমুদ্দুর। শ্বাসতঃ সালাতের পূর্ব্ব তুমি। […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : চার

২০১ ডুব দিলে, বা’জান! আর ঢেউ থাকে না। ২০২ এজিদ-যার যার ভিতরের জিদ-ই, তার এজিদ। এজিদারে বধ কর। ২০৩ নিজেরে নিজে মাফ কইরা দাও। তইলে আর মাফ চাওন লাগবো না। ক্ষ্যামা আদি, ক্ষ্যামা কূল; ক্ষ্যামা রাখে জাতিকূল। ২০৩ আউযু বিল্লাহি মিনাশ্ শাইত্বানির রাজীম। শয়তানরে রাজী কইরা, বশ কইরা রাখতে অয়। বিসমিল্লাহির রহমানির রাহীম। বিসমিল্লা’য় বিশ্বের […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : দুই

৫১ সঙ্গ গুনে, রঙ্গ ধরে। পরশের ছোঁয়ায়, পরশ হয়। ৫২ বাঁশী বাজে ধা-ধা। রাধা’য় শোনে রা-ধা। ৫৩ সাপ, স্বপন; পোনা; -যে না কয়; সে-ই একজনা। ৫৪ বাউল-বাউলি দিয়া কয়। অন বিচারে সাধু মরে। ৫৫ ছোট্ট শব্দ ‘কল্পনা’, -কথা কিন্তু অল্প না। রাঢ়ী মাগী(অতৃপ্ত মন) স্বপ্ন দ্যহে, টেরাক ভইরা ভাতার(কাংখিত বিষয়) আহে। ৫৬ রস থাকতে কর […]

বিস্তারিত পড়ুন
হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু বাণী

হযরত ফকির কাশেম আলী চিশতী কাদ্দসাল্লাহ সের্রুহু’র বাণী : এক

১ একদিন আমি বড় হবো, নইলে কি আর তাঁরে পাবো! ২ এত খাই! তবু খাই মিটে না। খা-না। খাইতেও কইছে, না খাইতেও কইছে। ৩ নিজ গুনে, করন দোষে; সব হারাইয়া; দৈব কান্দে -মাথায় হাত দিয়া। ৪ বাদী-বিবাদী নিষ্পত্তি হইয়া গেলে, বিচারকের বিচার করার কিছু থাকে না। ৫ বাদশাহী খাওন, কুত্তারে খাওয়ান যায় না। তইলে, কুত্তার […]

বিস্তারিত পড়ুন
error: Content is protected !!