রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর

আমি কেমন করিয়া জানাব

আমি কেমন করিয়া জানাব
আমার জুড়ালো হৃদয় জুড়ালো-
আমার জুড়ালো হৃদয় প্রভাতে।
আমি কেমন করিয়া জানাব
আমার পরান কী নিধি কুড়ালো-
ডুবিয়া নিবিড় গভীর শোভাতে ॥

আজ গিয়েছি সবার মাঝারে,
সেথায় দেখেছি আলোক-আসনে-
দেখেছি আমার হৃদয়রাজারে।
আমি দুয়েকটি কথা কয়েছি তা
সনে সে নীরব সভা-মাঝারে-
দেখেছি চিরজনমের রাজারে ॥

এই বাতাস আমারে হৃদয়ে লয়েছে,
আলোক আমার তনুতে
কেমনে মিলে গেছে মোর তনুতে-

তাই এ গগন-ভরা প্রভাত
পশিল আমার অণুতে অণুতে।
আজ ত্রিভুবন-জোড়া কাহার বক্ষে
দেহ মন মোর ফুরালো-
যেন রে নিঃশেষে আজি ফুরালো।

আজ যেখানে যা হেরি সকলেরই
মাঝে জুড়ালো জীবন জুড়ালো-
আমার আদি ও অন্ত জুড়ালো ॥

………………………..
রাগ: আশাবরী-ভৈরবী
তাল: একতাল
রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): ২৩ মাঘ, ১৩১২
রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1906
রচনাস্থান: শিলাইদহ
স্বরলিপিকার: কাঙ্গালীচরণ সেন

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!