জালাল উদ্দিন খাঁ

ও মন-গহিন গাঙ্গের পাড়ে

ও মন-গহিন গাঙ্গের পাড়ে
বৎসরেতে ছত্রিশ দিন, এসে প্রভু খেলা করে।।

ছুটিলে গঙ্গা-যমুনা, বাঁধতে কারো শক্তি হয়না
জলের সঙ্গে ভাসে ফেনা, আটাশ দিনের পরে,
মনোরঙ্গে প্রেম-তরঙ্গে ডুবতে যে জন পারে-
রং মাখিয়া সং সাজিয়া ভাসে গিয়া পরপারে।।

যখন নদীর জোয়ার ডাকে, জলের নিচে মানুষ থাকে
সাঁতার খেলে ফাঁকে ফাঁকে, সুধা তালাস করে,
লুকি দিয়ে থাকে মানুষ লোহিত সাগরে-
পাইয়া সে ধন পরশ-রতন, চুম্বকে আহার করে।।

জালালে কয় মনরে কানা,ছেড়ে দিয়ে টালবাহানা
খুঁজে লও হীরার দানা, মনি-মুক্তা কতই ঝরে,
বাহ্যরূপে ভুলে রইলে, ভাবনা নাই অন্তরে-
খেলা ভাঙ্গলে নয়ন মেলে, দেখবি আটকা অন্ধকারে।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!