রাধারমণ দত্ত

রে ভমর, কইয়ো গিয়া–
শ্ৰীকৃষ্ণ-বিচ্ছেদে আমার অঙ্গ যায় জ্বলিয়া।।
ভমর রে, কইয়ো কইয়ো, হায় রে ভমর,
প্ৰাণ বন্ধের লাগ পাইলে–
আমি রাধা মইরে যাব কৃষ্ণহারা হইয়া।।
ভমর রে, সারা নিশি পোসাইলাম
ফুলের শয্যা লইয়া–
সেই শয্যা হইল বাসি,–দেও জলে ভাসাইয়া।।
ভমর রে, না খায় অন্ন, না খায়৷ জল,
নাহি বান্ধে কেশ,
তোমার পিরিতের লাগি রাধার পাগিলিনীর বেশ।
ভমর রে, ভাইবে রাধারমণ বলে
কান্দিয়া কান্দিয়া
নিবি ছিল মনেরি আগুইন—-আগুইন কে দিলা জ্বালাইয়া।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!