রাধারমণ দত্ত

সখী উপায় কি করি প্ৰেম বিরহে অঙ্গ জ্বলে আর কতো বা ধৈর্য ধরি।।
হাসিমুখে প্রেমসুধা খাইলাম গেলাস ভরি
না জানিতাম এত জ্বালা সুধার মাঝে আছে করি।
সুধায় যে গরলের কার্য আগে কেমনে আন্দাজ করি
হাসিমুখে খাইয়া এখন যন্ত্রণা হইয়াছে ভারী।
কি হইয়াছে ওগো বধু জিগায় ননদ শাশুড়ী
কি কই, আর কই না কেমনে যন্ত্রণা অসহ্য ভারী।
ভাবিয়া রাধারমণ বলে না বাঁচি না মারি–
সুখের লাগি দুখ বাড়াইলাম এখন উপায় কি করি?

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!