শাহ্ আব্দুল করিম

কোথায় কে আছো তবে এইখানে আসো
আমার সমুখে সবে গোল হয়ে বসো,
নুরজালাল-আসো বাবা, ভাগিনা তোয়াহিদ
নুরুন্নেসা বসো মাগো, সুজন মোশাহিদ।।

রুহিতো আগেই গেলো, রয়েছো রণেশ
আব্দুর রহমান আর যারা আছো বেশ,
কান খাড়া করে দেখ, ঐ দূর গায়
শুনতে পেয়েছো কেউ, ডাকে কে আমায়?

আমি তো শুনেছি ডাক মৌলা আমার
নৌকা পাঠিয়ে দিছেন মাঝিমাল্লা,
দেখে এসো ভিড়েছে কি মৌলার নাও?
আমারে যে নিয়ে যাবে মাশুকপুর গাও।।

তারপর আছে, আরো কথা আছে
মাটির শরীর রবে তোমাদের কাছে,
যেখানে সরলা শুয়ে, সরলার ঘর
ও ঘরের পাশে দিও আমার কবর।।

চাউল নাই ঘরে আমি নিশ্চিত জানিয়া
আসরের ডাকে আমি গিয়াছি চলিয়া,
মাস দুই পরে যখন ফিরিয়া আইলাম
কখনো জিগ্যাসে নাই, আমি কোথায় ছিলাম।।

বলেছে আমারে, ‘আঁচলে বান্ধিয়া যদি রাখি আপনার
কী করে জানা হবে জগৎ সংসার,
মানুষের সাথে যদি না ই মিশিবেন
মানুষের কথা তবে কেমনে লিখেন।।’

সরলা, তোমার কাছে মোর জীবনের ঋণ
এই দায় শুধবেনা আর কোনোদিন,
আব্দুর রহমান পুবের ভিটায় কেটে ঘন জঙ্গল
শা’করিম জাহানের সরলা মহল।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!