রবীন্দ্রনাথা ঠাকুর

দুখের বেশে এসেছ

দুখের বেশে এসেছ ব’লে তোমারে নাহি ডরিব হে।
যেখানে ব্যথা তোমারে সেথা নিবিড় ক’রে ধরিব হে ॥

আঁধারে মুখ ঢাকিলে স্বামী, তোমারে তবু চিনিব আমি-
মরণরূপে আসিলে প্রভু, চরণ ধরি মরিব হে।
যেমন করে দাও-না দেখা তোমারে নাহি ডরিব হে ॥

নয়নে আজি ঝরিছে জল, ঝরুক জল নয়নে হে।
বাজিছে বুকে বাজুক তব কঠিন বাহু-বাঁধনে হে।
তুমি যে আছ বক্ষে ধরে বেদনা তাহা জানাক মোরে-
চাব না কিছু, কব না কথা, চাহিয়া রব বদনে হে ॥

……………………….
রাগ: ইমনকল্যাণ
তাল: ঝম্পক
রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): 1312
রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1906
স্বরলিপিকার: কাঙ্গালীচরণ সেন

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!