গৌরাঙ্গ মহাপ্রভু চৈতন্য নিমাই বৈষ্ণব

রাধাকৃষ্ণের যুগলরূপ বর্ণন

জয জয় শ্রীরাধে জয় জয় রাধে গোবিন্দ রাধে
ঠাকুর হামার নন্দকি লালা, ঠাকুরাণী শ্রীমতী রাধে।।
একই পালঙমে দুহু জন বৈঠল, দুহুঁমুখ সুন্দর সাজে।।
রাতুল চরণে মণিময় নুপুর রুণু ঝুণু ঝুণু বাজে।।
শ্যামগলে বনমালা বিরাজিছে, রাইগলে মোতি সাজে।
শ্যামশিরে ময়ুর পুচ্ছ, রাই শিরে সিথিঁ সাজে।।
শ্যাম পরেছে পীতবাস, রাই নীলাম্বরী সাজে।।

ভুবনমোহন সনে ভূবনমোহিনী, একসনে বিরাজে।।
শ্রীবৃন্দাবনমে কুসুম কাননে, ভ্রমরা হরিগুণ গাও রে।
শ্রীবৃন্দাবনমে নিকট যমুনা, মুরালী তান শুনাও রে।
সুচারু বয়ানে, বঙ্কিম নয়ানে, টেরটের চাহনি সাজে।
চাঁচর চিকুর, ময়ুরকে কণ্ঠিত, কুঞ্চিত কেশ বিরাজে।।
শারি শুক গান করে (বসি) তমালেরি ডালে।
তপন তনয়া মেহন মুরলী শুনি উজ্জল বাহি চলে।।
ময়ূর ময়ূরী নাচে কোকিল করে ধ্বনি।
দাস মনোহর, করত নিবেদন, দয়া কর শ্রীরাধে।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!