মতুয়া সংগীত

সুধন্যচাঁদের জ্যেষ্ঠপুত্র

চিরকুমার শ্রীভগবতীচাঁদের কাহিনী
পয়ার

সুধন্যচাঁদের জ্যেষ্ঠপুত্র ভগবতী।
বাল্যাবধি পিতামহ পদে থাকে মতি।।
আজীবন ব্রহ্মচারী শাপভ্রষ্ট ঋষি।
চাঁদের অমিয় বিন্দু পড়িল যে খসি।।
সঙ্গীত চিত্রাদি বিদ্যা করায়ত্ব করি।
অন্তরে প্রেমানুরাগী সদা হরি হরি।।
সর্ব কর্ম অগ্রগামী যৌবন সময়।
দীন দুঃখীদের তরে কাঁদিত হৃদয়।।
দরিদ্র ভাণ্ডার করি দুর্ভিক্ষের দিনে।
বাঁচালেন দীন দুঃখী দেশবাসীগণে।।
কিশোর সুরেশ অভিমন্যু আদি যত।
পশ্চাতে চলিত তার ইঙ্গিতে সতত।।
এম. এ. পাশ করিলেন ফিলসফি নিয়া।
স্ব-গ্রামে প্রথম এম. এ. বিলাতেতে গিয়া।।
পি. এইচ. ডি. ডক্টরেট হইলেন শেষে।
প্রথম বিলাত যাত্রী খ্যাতি বহুদেশে।।
তেরশ আটচল্লিশ সাল ছয়ই ফাল্গুন।
শেষবার গাহিলেন হরিলীলাগুণ।।
লীলা খেলা সাঙ্গ করি গোলোকে চলিলা।
শুনে পুণ্য পুণ্যবান ভগবতী লীলা।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!