বিজয় সরকার

সেদিন চপল ছন্দে গেলে

সেদিন চপল ছন্দে গেলে আমার চলার রাস্তা দিয়ে
প্রাণবন্ধুরে আমি তখন দাঁড়ানো ছিলাম পাশে।
তোমার চকিত চোখের পাওয়ার ফাগুন হাওয়া ভাসে।।

গেলে তুমি ধীরে ধীরে
চাইলে কতো ফিরে ফিরে
মনতটিনীর তীরে তীরে
আশার জোয়ার আশে;
আমার বিরহীপ্রাণ
বিভোল হলো তোমার মিলনে বিলাসে।।

বিহঙ্গ বিধিয়া শরে
যে বেদনায় কেঁদে মরে
বাঁধে না ব্যাধের অন্তরে
কি জ্বালা সেই বিষে;
জানি শিকার করা স্বভাব যাদের
তারা পরের পরান নাশে।।

কোন্ বা দেশে তোমার বাসা
বোঝ না কি ভালোবাসা
খোঁজ না কি প্রাণের ভাষা
নীরব উচ্ছ্বাসে
আমার মন কেন হইলো এমন
তোমার পিরিতিপিয়াসে।।

মন মজানো পরানপ্রিয়
এই পথে আবার আসিয়ো
উড়াইয়ে উত্তরিয়ো
বাসন্তি বাতাসে;
আমার চিত্তচকোর বিভোর হলো
তোমার রূপ সুধার আশে।।

পাগল বিজয় বলে ধরা দিতে
যদি না চায় তোমার চিতে
আঁখি মোর চাহে দেখিতে
মানা মানে না সে;
তোমায় দূরে থেকে বাসবো ভালো
যেমন চাঁদকে ভালোবাসে।।

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!