মতুয়া সংগীত

হরি বল হরি বল

(তাল-যৎ)
হরি বল হরি বল
ভবে আর কি আছে বল।
ও মন দুর্বলের বল আছে কেবল, হরিবল পথের সম্বল।

ও মন জীবনে মরণে সাথী, হরিনাম সঙ্গের সঙ্গতি নিদানে,
হরি বললে শমন আসবে না সন্নিধানে।
এমন হরি নামে করে হেলা, কল্লি কিরে এমন পাগলা।
বোঝা যাবে পারের বেলা, সম্বল বিহীন হ’তে হ’ল।

মনরে বল হরি বদন ভরি, হরিচাঁদ পারের কাণ্ডারী ভবার্ণবে,
হরি বললে হরি সবাকে পার করিবে।
যে জন হরি বলে দাঁড়াবে কুলে, দয়াল নিতাই নিবে, নৌকায় তুলে,
পার করে দেয় বিনামূল্যে, আমার নিতাইয়ের মত নাই দয়াল।

ও মন হরের্ণাম কেবলং হরের্ণামৈব কেবলং গতির্ণান্ত্যেবং
গতির্ণান্ত্যেবং নাস্ত্যেবং গতির্ণান্ত্যেবং।
বললে ত্রিসত্য অঙ্গীকার করে, বেদশাস্ত্র তন্ত্র সারে,
ধর্ম বলতে এ সংসারে, সকল ধর্ম হরিনামে র’ল।

নামের তুলনা নাহিক দিতে, প্রভু আনলেন অবনীতে অতি যতনে,
নামের মর্মার্থ কেবল সেই প্রভু জানে,
গোলক বলে তারক তোরে বলি, এবার ধন্যরে যুগ ধন্য কলি,
কলির জীব ত্বরাব বলি, আমার হরিচাঁদ জগতে এল।
(আমার গৌর নিতাই ন’দে এল)

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!